বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো প্রেসক্লাব গাইবান্ধার অভিষেক ও প্রীতিভোজ

 

বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো প্রেসক্লাব গাইবান্ধার অভিষেক ও প্রীতিভোজ

শেখ মো: আতিকুর রহমান আতিক, মফস্বল ডেস্ক :

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে প্রেসক্লাব গাইবান্ধার নবনির্বাচিত কমিটির অভিষেক ও প্রীতিভোজ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুধবার (২৪ নভেম্বর) দিনব্যাপী প্রেসক্লাব গাইবান্ধার সভাপতি খালেদ হোসেনের সভাপতিত্বে জেলা পরিষদের দ্বিতল ভবনের ছাদে গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে এ আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়।
প্রথমে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অভিষেক অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিকতা শুরু করা হয়। পরে প্রেসক্লাব গাইবান্ধার সাধারন সম্পাদক জাভেদ হোসেনের শুভেচ্ছা বক্তবের পর গাইবান্ধা পৌরসভার প্যানেল মেয়র শহিদ আহমেদ নব-নির্বাচিত কমিটির নাম ঘোষণা করেন।
এর পরপরই বক্তব্য রাখেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসিফ সরকার, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি রেজাউল করিম রেজা, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মৃদুল মোস্তাফিজ ঝন্টু, জেলা তথ্য অফিসার মাহাফুজ রহমান, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী আব্দুর রউফ তালুকদার, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান সরকার আতা।
সবশেষে বক্তব্য রাখেন গাইবান্ধার জেলা প্রশাসক মো: আবদুল মতিন।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গাইবান্ধা র‍্যাব ক্যাম্পের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রাজ্জাক খান, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুর রাফিউল আলম, জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক শাহ্ আহসান হাবিব রাজিব, বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের গাইবান্ধা পৌর শাখার আহবায়ক শেখ রোহিত হাসান রিন্টু, জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মোসাদ্দেক হোসেন মামুনসহ স্থানীয় গণমান্য ব্যক্তিবর্গ।

এ সময় জেলা প্রশাসক বলেন, সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা। এ পেশার প্রতি দুর্বলতা রয়েছে অধিকাংশ সচেতন মানুষের। সাংবাদিকতা পেশায় যেমন রয়েছে ঝুঁকি, তেমন রয়েছে সম্মান ও রোমাঞ্চ। অপসাংবাদিকতা বাদ দিলে যেটুকু থাকে তার সবটুকুই আত্মতৃপ্তি পাওয়ার জন্য একটি স্বাধীন পেশা সাংবাদিকতা ।
আর এই কারনেই সংবাদপত্রকে সমাজের দর্পণ আর সাংবাদিকদের জাতির বিবেক বলে আখ্যায়িত করা হয়। এ ছাড়া সংবাদপত্র রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবেও স্বীকৃত।
একজন সৎ নির্ভিক ও নিরপেক্ষ সাংবাদিক সমাজের কাছে যেমন সমাদৃত তেমন দুর্নীতিবাজ, সন্ত্রাসী, চোরাচালানী, মাদকদ্রব্য ব্যবসায়ী ও সমাজ বিরোধীদের কাছে আতংক ।
আপনাদের দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে। রাষ্টের ভূল ত্রুটিগুলো সাংবাদিকরাই তুলে ধরবেন।
অনুষ্ঠান শেষে প্রেসক্লাব গাইবান্ধার সকল সাংবাদিকসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা প্রীতিভোজে অংশ গ্রহণ করেন ।

আরো পড়ুন :  শেষ অগ্নিপরীক্ষায় হুদা কমিশন