শার্শায় ইউপি নির্বাচনে সতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীকে কুপিয়ে জখম

স্টাফ রিপোর্টার : (যশোর শাখা)

 যশোরের শার্শায় ইউপি নির্বাচনে উলাশী বাজারে নৌকা প্রার্থীর সমর্থক কর্তৃক সতন্ত্র প্রার্থীর আনারস মার্কার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও কর্মী সমর্থকের উপর মারপিটের উঠেছে। একই সাথে সম্বন্ধকাঠি মোড়ের মেম্বর পদপ্রার্থী সাইফুল ইসলামের নির্বাচনী অফিসটিও ভাংচুর করে গুড়িয়ে দেয় হামলাকারীরা।

এ ঘটনায় সতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব আয়নাল হকের কর্মী নজরুল ইসলাম সহ কয়েকজন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে । আহত নজরুল ইসলামের অবস্থা গুরুতর।

বুধবার দুপুরে শার্শার উলাশী বাজারে জনসম্মুখে একদল সন্ত্রাসীরা এই হামলা চালায়।

সরেজমিনে তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়, আগামী ২৮ নভেম্বর শার্শা উপজেলায় তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। এরিমধ্যে দলীয় ও সতন্ত্র প্রার্থীরা নিজ নিজ প্রতিক নিয়ে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা শুরু করেছেন।
নির্বাচনী সহিংসতা প্রতিরোধে দলীয় পক্ষ থেকে বিধিনিষেধ থাকলেও একই দলের মধ্যে নৌকা প্রতিকের সাথে বিদ্রোহী (সতন্ত্র) প্রার্থীরাও নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে অবস্থান করায় একে অপরের প্রতি ফুঁসে উঠেছে।

এঘটনায় ৯ নং উলাশী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বর্তমান সতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব আয়নাল হক উলাশী ইউনিয়নের গিলাপোল গ্রামের আবুল হোসেনর ছেলে আলিনুর, উলাশী গ্রামের মশিয়ার রহমানের ছেলে হাসান আলী, সম্বন্ধকাঠি গ্রামের মৃত সাধনের ছেলে আওয়াল, সালাম, মিঠু, রবি সহ অজ্ঞাত আরো ১০ উল্লেখ করে থানায় অভিযোগ দায়ের করবেন বলে সাংবাদিকদের কাছে বক্তব্য তুলে ধরেন।

এসময় তিনি বলেন, নিজ দলের ভেতর নৌকা পেয়ে সতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ভাংচুর এবং দলীয় কর্মীদের উপর যে অমানষিক নির্যাতন করা হয়েছে আমি তার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। পরে বিকাল চারটার সময় আলহাজ্ব আয়নাল হক তার সমর্থকদেরকে নিয়ে উলাশী বাজারে এক প্রতিবাদ কর্মসূচী পালন করেন।

এবিষয়ে শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ বদরুল আলম খান বলেন, উলাশীর ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনা তদন্ত করে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরো পড়ুন :  যুবককে পিটিয়ে হত্যা আটক-তিন

এমকে