দৈনিক আস্থা | সত্য সমাজের দর্পন
আজ শুক্রবার | ১০ই জুলাই, ২০২০ ইং
| ২৬শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১৮ই জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী | সময় : রাত ২:২০

মেনু

বরিশালে চিকিৎসকসহ ৫ জন করোনায় আক্রান্ত
হাসপাতাল লকডাউন

বরিশালে চিকিৎসকসহ ৫ জন করোনায় আক্রান্ত

মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল ২০২০
১১:০৪ পূর্বাহ্ণ
342501 বার

বরিশালের ৩ উপজেলায় একদিনে চিকিৎসক ও সেবিকাসহ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও ৫জন রোগী সনাক্ত হয়েছে। বরিশাল সিভিল সার্জন ডা. মো. মনোয়ার হোসেন সোমবার রাত ১০টায় এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে রবিবার সন্ধ্যা থেকে বরিশাল জেলায় মোট ৭জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হলো।

সোমবার সনাক্ত হওয়া ৫জনের মধ্যে আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন চিকিৎসক, বাবুগঞ্জে একজন রোগী, একজন সেবিকা ও একজন চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী এবং গৌরনদীতে একজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষিকা রয়েছেন। বাবুগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন এক নারী রোগীর সংস্পর্শে ওই হাসপাতালের সেবিকা ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী আক্রান্ত হয়েছেন।

বাবুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সুভাষ সরকার বলেন, ওই তিন জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের লক্ষণ থাকায় সোমবার সকালে তাদের নমুনা সংগ্রহ করে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পাঠানো হয়। রাতে সেখান থেকে তাদের করোনা পজিটিভের বিষয়টি অবহিত করা হয়।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মনোয়ার হোসেন জানান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অনেকে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে এসেছেন। এ কারণে নার্স ও কর্মচারী আক্রান্ত হয়েছে। পুরো স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স লকডাউন করে সকলকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে। তবে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বহির্বিভাগ সীমিত পরিসরে চলবে।

সিভিল সার্জন ডা. মনোয়ার হোসেন আরও জানান, আগৈলঝাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নারী চিকিৎসক (২৬) কয়েকদিন ধরে জ্বর, সর্দি-কাশিতে ভুগছিলেন। ১২ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের আরটি পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। সোমবার সন্ধ্যার পর জানানো হয় ওই নারী চিকিৎসক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

তবে ওই রিপোর্ট নিয়ে চিকিৎসকদের মনে কিছুটা সন্দেহ তৈরি হওয়ায় পুনরায় পরীক্ষার জন্য নারী চিকিৎসকের নমুনা ঢাকার জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হচ্ছে।

আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বখতিয়ার আল মামুন জানান, নারী চিকিৎসক গত দু’মাসে বরিশাল জেলার বাইরে যাননি। তার স্বামীও একজন চিকিৎসক। এ দম্পতি পার্শ্ববর্তী গৌরনদী উপজেলায় একটি বাসায় ভাড়া থাকেন। কিভাবে সংক্রমিত হলো তা ওই নারী চিকিৎসক বুঝে ওঠতে পারছেন না। তবে কোন রোগীর সংস্পর্শে এসে সংক্রমিত হয়েছেন বলে ধারনা করা হচ্ছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বখতিয়ার আল মামুন জানান, ওই চিকিৎসক দম্পতি এবং তাদের সংস্পর্শে যারা এসেছেন তাদের আগামী ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এর আগে রবিবার শের-ই বাংলা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন মেহেন্দিগঞ্জের একজন রোগী এবং বাকেরগঞ্জের একজন রোগীর করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে।

 

আপনার মন্তব্য লিখুন

১১২টি আইসিইউ বেড মাত্র!
০৭ এপ্রিল ২০২০ 394569 বার