Economy

কোথায় বসবে গরুর হাট জানালেন মেয়র আতিক

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে রাজধানীর কোথায় কোথায় গরুর হাট বসবে তা জানালেন মেয়র আতিক।জনস্বাস্থ্যের কথা বিবেচনায় রেখে রাজধানীর ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় কোরবানি পশুর হাট বসাবে না।ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)। বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) বিকেলে ডিএনসিসির নগর ভবনে। গণমাধ্যমের উদ্দেশে দেয়া এক ভিডিও বার্তায় মেয়র মো. আতিকুল ইস’লাম এ কথা বলেন।

আরও পড়ুনঃকোরবানির পশুরহাট সংক্রমণের হার আরও বাড়িয়ে দেয়ার আশঙ্কা- কাদের

মেয়র বলেন, আমা’র কাছে বিভিন্ন প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কাছ থেকে ফোন আসছে যে, আম’রা যদি ঢাকার পশুর হাট যদি বন্ধ করে দেই তবে তাদের কী’ হবে! এটিই কিন্তু এখন বাস্তবতা, প্রান্তিক জনগোষ্ঠী কিন্তু একটি বছর অ’পেক্ষা করে থাকে এই কোরবানি পশুর হাটের জন্য। তাদের অনেকেই পশু পালন করে বিক্রি করেই জীবিকা নির্বাহ করে। একইসাথে ধ’র্মপ্রা’ণ মু’সল্লিগণ ও আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য পশু কোরবানি অ’ত্যন্ত গুরুত্বের সাথে নেন। আবার এটিও সত্য যে

আমাদের শহরে ঘনবসতিপূর্ণ স্থানে যদি পশুর হাট বসে সেটি কিন্তু জনস্বাস্থ্যের জন্য অ’ত্যন্ত ঝুঁ’কিপূর্ণ।

আরও পড়ুনঃপশুর হাট বসলে সর্বনাশ হয়ে যাবে : ডা. লেলিন

এজন্য কিছু কিছু সিদ্ধান্ত আমি পরিবর্তন করতে বলেছি। মেয়র আতিক বলেন, হাট ইজারা দিয়ে

হয়তো কোটি টাকা আয় করা যাবে, কিন্তু টাকার চেয়ে মানুষের জীবনের মূল্য অনেক বেশি। তাই আমি ঢাকার বাইরে তুলনামূলক কম ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় হাট বসানোর জন্য নির্দেশ দিয়েছি যাতে ব্যবসায়ীরা পশু বিক্রিও করতে পারে আবার জনস্বাস্থ্যও বিবেচনায় রাখা যায়। মেয়র বলেন

main-ads.jpg

,আমাদের তেজগাঁও, আফতাবনগর, ভাষানটেক এলাকায় বড় হাট বসে প্রতিবার। সেখান থেকে আমাদের অনেক টাকা আয়ও হতো। কিন্তু এবছর করো’না বিবেচনায় আম’রা এলাকাবাসীর স্বাস্থ্যের কথা ভেবে এই স্থানে হাট বসতে দিবো না। আমাদের অনেক টাকা আয়ও হতো। কিন্তু এবছর করো’না বিবেচনায় আম’রা এলাকাবাসীর স্বাস্থ্যের কথা ভেবে এই স্থানে হাট বসতে দিবো না।