রাজনীতি

নব্য বাটপার সাহেদ বানায় তৃতীয় মাত্রার জিল্লুর: নাজমুল

রিজেন্ট গ্রুপ ও হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মো. সাহেদ কীভাবে টকশোতে এতটা পরিচিত হয়ে ওঠেন। এত এত গুরুত্বপূর্ণ নেতা থাকতে তাকে কেন চ্যানেল আই এর তৃতীয় মাত্রার অতিথি করা হতো? এ নিয়ে ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম রীতিমতো “তৃতীয় মাত্রা”র উপস্থাপক জিল্লুর রহমানকে তুলেছেন সমালোচনার কাঠগড়ায়।

গত মঙ্গলবার সাংবাদিক হারুন উর রশীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল মাধ্যমে এক আলাপচারিতায় এ নিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন সাবেক এই ছাত্রনেতা।

সিদ্দিকী নাজমুল আলম বলেন, আন্তর্জাতিক কমিটির মেম্বার তো আরও ৫০ জন আছেন, সবাই সাহেদকে চেনে না এই সাহেদকে চেনে কেন। আপনারা মোটিভেট করেছেন, আপনারা রাতের বেলায় টকশোতে বসিয়েছেন। কোন কাইটেরিয়ায় কোন শিক্ষাগত যোগ্যতায় আপনারা সাহেদকে আমন্ত্রণ জানাতেন। এটি আমার জানতে মন চায়। জিল্লুর রহমান সাহেব তৃতীয় মাত্রার অনুষ্ঠান করেন। এই তৃতীয় মাত্রার অনুষ্ঠান দেশে একবার ওয়ান ইলিভেন এনেছে। এই তৃতীয় মাত্রার অনুষ্ঠান রাজনৈতিকভাবে ষড়যন্ত্রের সাথে জড়িত সবসময়।

তিনি আরও বলেন, আমি তৃতীয় মাত্রার জিল্লুর রহমান সাহেবের কাছে প্রশ্ন করি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে এত গুরুত্বপূর্ণ নেতা থাকতে, হাজার হাজার মেধাবী, গ্যাজুয়েট ছাত্র নেতা থাকতে কোন যোগ্যতায় সাহেদকে তিনি অতিথি করতেন। এত অতিথি থাকতে সাহেদ কেন টকশোতে যায়। কেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে কি চিঠি দেওয়া হয় যে সাহেদকে অতিথি না করলে চ্যানেল আই থাকবে না। আওয়ামী লীগ থেকে কি চিঠি দেওয়া হয় যে গাজী টিভি বন্ধ হয়ে যাবে যদি সাহেদকে অতিথি করা না হয়? কিংবা এসএ টিভি বন্ধ হয়ে যাবে? যদি সাহেদকে অতিথি না করা হয়। এগুলো কিছু লোভী, যারা উদ্দেশ্যমূলক এদের দিয়ে টকশো বানায়, সংবাদের শিরোনাম বানায়, তারা তাদের প্রমোট করে, আর অবশ্যই এখানে লেনদেন রয়েছে।

কাকে কবে কোনদিন অতিথি করা হবে এসব ঠিক করতেও নাকি আসর বসানো হয় নামি-দামি রেস্টুরেন্টে বা ক্লাবে। যেমনটা বললেন সিদ্দিকী নাজমুল আলম, আমি লিখেছি, বিভিন্ন ক্লাবে, নামি-দামি রেস্টুরেন্টে এগুলোর আসর বসে। সেখানে ঠিক করা হয়, কার সাথে কে অতিথি হবে। এটা কি আওয়ামী লীগ ঠিক করে দেয়, এটা রাজনীতিবিদরাও ঠিক করে দেয় না।

main-ads.jpg

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সংসদে বলেছেন চোর ধরে আমরা নিজেরাই চোর হয়ে যাচ্ছি, এটা কিন্তু ওনি একটা কষ্টের কথাই বলেছেন।