জাতীয়

অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখেই চলবে ট্রেনঃ রেলপথমন্ত্রী

সোমবার (৩১ আগস্ট) রেলভবনে লাগেজ ভ্যান সংগ্রহে চীনের কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রেলপথমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন জানায়, বাসে যাত্রী পরিবহন আগের ব্যবস্থায় ফিরে গেলেও অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখেই ট্রেন চলাচল অব্যাহত থাকবে। আর এই মুহূর্তে রেলের ভাড়া বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনা নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি।

ইতিমধ্যে আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যেই আসন পূর্ণ করে বাস চালানোর সিদ্ধান্ত নেয়ে হলেও রেল চলাচল কবে নাগাদ স্বাভাবিক হবে- এ বিষয়ে রেলমন্ত্রী বলেন, ‘সমস্ত রেল আমরা পর্যায়ক্রমে চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। করোনাভাইরাস সংক্রমণ এখন উপরের দিকে যাবে না নিচের দিকে নামবে তা এখনও আমার নিশ্চিত নই। বাস আসন পূর্ণ করে আগের ভাড়ায় চলাচলের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে আমরা তেমন কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করিনি।’

আরো পড়ুনঃপণ্য পরিবহনের জন্য ১২৫টি লাগেজ ভ্যান কিনছে রেলওয়ে

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে ট্রেন চালাতে এবং পণ্য পরিবহনে রেলের আয় বাড়াতে বলেছেন।’

রেলের ভাড়া বৃদ্ধি হচ্ছে কিনা- জানতে চাইলে রেলমন্ত্রী বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমরা রেলের ভাড়া বৃদ্ধির কোনো সিদ্ধান্ত নেইনি, তবে এ বিষয়ে গবেষণা চলছে ভবিষ্যতের জন্য। মানুষের সামর্থ্য বৃদ্ধি এবং রেলের সেবা উন্নত হওয়ার পর ভাড়া বৃদ্ধির বিষয়ে একটি প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। ভবিষ্যতে যখন মানুষের সামর্থ্য বাড়বে যে সার্ভিস দিচ্ছি সেই সার্ভিস যখন বৃদ্ধি করতে পারবো। যখন একটা স্বাভাবিক অবস্থা আসবে সেটা নিয়ে চিন্তা করতে পারি কিনা সেটি নিয়ে দেড় বছর আগে একটি কমিটি করে দায়িত্ব দিয়েছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘সেই কমিটি সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করেছে। তার মানে এই নয় যে আমরা রেলের ভাড়া বৃদ্ধি করছি। বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে যে প্রশ্নগুলো উঠানো হচ্ছে সেটি কিন্তু সঠিক না।’