Cricket খেলাধুলা

দেশে ফিরেছেন সাকিব

অবশেষে দেশে ফিরলেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের ‘নবাব’ খ্যাত সাকিব আল হাসান। প্রায় ছয় মাস যুক্তরাষ্ট্রে কাটানোর পর গত রাত ২.৫০ মিনিটে কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে ঢাকায় পা রাখেন তিনি। নিষেধাজ্ঞার পর প্রায় বেশিরভাগ সময়ই স্ত্রী-সন্তানদের সাথে ইউনাইটেড স্টেটেই কাটান সাকিব। অবশ্য করোনার শুরুতে ঘুরেও গেছেন দেশ থেকে।

সাকিব দেশে ফিরলেও তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির, দুই মেয়ে আলাইনা হাসান এবং ইরাম হাসান যুক্তরাষ্ট্রেই আছেন। সিরিজ শেষে এই ক্রিকেটার আবার ফিরে যাবেন পরিবারের কাছে। তাই আপাতত রেখে এসেছেন তার মা শিরীন আক্তারকে।

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন করায় ২০১৯ সালের অক্টোবরে এক বছরের জন্য সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন সাকিব। তার এই নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ উঠে যাবে আগামী মাসের ২৯ তারিখ। তিনটি টেস্ট খেলতে সে সময় শ্রীলঙ্কায় থাকবে বাংলাদেশ দল। তাই প্রথম ম্যাচে না থাকলেও দ্বিতীয় ম্যাচেই হয়তো দলে দেখা যেতে পারে সাকিব আল হাসানকে।

শ্রীলঙ্কা সিরিজেই দলে ফিরবেন সাকিব, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এমন ঘোষণা আগেই দিয়েছেন। তবে দীর্ঘদিন ক্রিকেটের বাইরে থাকায় তার ফিটনেস নিয়েও প্রশ্ন আছে। তাই পাপন এটাও জানান, নিজেকে ফিট প্রমাণ করেই পুরনো জায়গায় আসতে হবে সাবেক অধিনায়ককে।

নিষেধাজ্ঞা থাকায় আপাতত দলের সাথে অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছেন না সাকিব। তাই বিকল্প হিসেবে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে (বিকেএসপি) বেছে নিয়েছেন। এখানেই চালাবেন ক্রিকেটে ফেরার সংগ্রাম। যে সংগ্রামে তাকে সাহায্য করবেন সাবেক গুরু নাজমুল আবেদিন ফাহিম এবং মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন।