Bangladesh Rangpur

ইউএনও ওয়াহিদার ওপর হামলার ঘটনায় তদন্ত কমিটি

দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানমের ঢাকার নিউরো সায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মাথার খুলি ভেঙে ভেতরে ঢুকে যাওয়ায় অবস্থা সংকটাপন্ন। তবে হামলায় আহত তার বাবা ওমর ফারুক আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন রংপুরের চিকিৎসকেরা। এদিকে, সিসিটিভি ফুটেজে দুইজনের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। তাদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে। ঘটনা তদন্তে বিভাগীয় কমিশনারের নেতৃত্বে ৭ সদস্যের কমিটি করা হয়েছে।

গত রাত আড়াইটার দিকে ভেন্টিলেটর ভেঙ্গে ইউএনওর সরকারি বাসভবনে ঢোকে দুর্বৃত্তরা। এসময় ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা নিজ নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। ঘরে ঢুকে হাতুড়ি ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের আঘাত করে দুর্বৃত্তরা। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। ওয়াহিদা খানম ও তার বাবাকে উদ্ধার করে প্রথমে ঘোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য সকালে দুজনকে নেয়া হয় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। তবে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় আনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

হ্যামার দিয়ে দুর্বৃত্তরা মাথার পেছনে আঘাত করেছে, দাবি আহত ইউএনও’র বাবার

তাদের ওপর হামলার ঘটনায় আতঙ্কিত এলাকার লোকজন। হামলার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানান তারা।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। হত্যার উদ্দেশ্যেই তাদের ওপর হামলা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।