Bangladesh Dhaka

গাজীপুরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ফটকের সামনে বৈদ্যুতিক খুঁটি

গাজীপুরে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ফটকের সামনে বৈদ্যুতিক খুঁটি স্থাপন করায় ক্ষুব্ধ শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। ঝুঁকিপূর্ণ খুঁটিটি সরাতে পল্লি বিদ্যুৎ অফিসে আবেদনও করেছেন প্রতিষ্ঠান প্রধান। এদিকে, দ্রুত খুঁটিটি সরিয়ে ফেলার নিদের্শ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পল্লি বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ।

করোনা পরিস্থিতির কারণে পাঁচ মাসের বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। দাপ্তরিক কাজ ছাড়া খুব একটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আসা-যাওয়া নেই শিক্ষক শিক্ষার্থীদের। এ সময়ের মধ্যেই মাওনা চৌরাস্তা পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ নামে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান ফটকের ঠিক সামনে পল্লী বিদ্যুৎ বৈদ্যুতিক খুঁটি স্থাপন করে। এতে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে স্থানীয়দের পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

একজন শিক্ষিকা বলেন, ‘কোনো বাচ্চার যদি কিছু হয় সেই দায়ভারতো আমাদের স্কুল কর্তৃপক্ষের। তাই চাইবো এই বৈদ্যুতিক খুঁটিটি সরানো হোক।’


শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জেনেও কিভাবে খুঁটিটি গেইটে স্থাপন করা হলো জানতে চেয়ে হতাশ প্রকাশ করেন গাজীপুর মাওনা চৌরাস্তা পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ রওশন হাসান।

এদিকে ময়মনসিংহ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জেনারেল ম্যানেজার শাহজাহান কবির বিষয়টি দুঃখজনক জানিয়ে দ্রুত সময়ের মধ্যে খুঁটিটি সরিয়ে ফেলার নিদের্শনা দেয়া হয়েছে বলে জানান।

২০০৯ সালে যাত্রা শুরু করা প্রতিষ্ঠানটিতে প্লে থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত রয়েছে ৩শ শিক্ষার্থী রয়েছে।