স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
জাতীয়

ইউএনওদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাস্তবায়ন হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

দুই মন্ত্রণালয়ের মত-ভিন্নতায় দুই বছর ধরে ঝুলে আছে মাঠ প্রশাসনের নিরাপত্তার বিষয়টি। ২০১৭ সালে ডিসি সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নিরাপত্তায় ব্যক্তিগত ও বাসস্থানের জন্য পৃথক নিরাপত্তা ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিলেও আজও তা উপেক্ষিত। এ অবস্থায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন উপজেলা প্রশাসনের সর্বোচ্চ কর্মকর্তারা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন হবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

মাঠ পর্যায়ে সরকারের রুটিন কাজের পাশাপাশি ঝুঁকিপূর্ণ অনেক কাজ পরিচালন করেন উপজেলা প্রশাসনের সর্বোচ্চ কর্মকর্তা- ইউএনও’রা। এসব কাজের মধ্যে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, জঙ্গী ও সন্ত্রাস দমনে নানা চ্যালেঞ্জমূলক কাজে মাঠে থাকতে হয় তাদের।

আরও পড়ুনঃ ইউএনও ওয়াহিদার ওপর হামলায় আটক যুবলীগের ২ নেতা বহিষ্কার

প্রতিনিয়ত এসব কাজে জীবনের ঝুঁকি তৈরির পাশাপাশি স্থানীয় নানা সমস্যার মুখোমুখি হতে হয় কর্মকর্তাদের। মাঠ পযার্য়ের এসব সমস্যার কথা উঠে আসে প্রতিবছর জেলা প্রশাসকদের সম্মেলনে। ২০১৭ সালে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের মুক্ত আলোচনায় বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসিদের পক্ষ থেকে ইউএনওদের নিরাপত্তার ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ থেকে পরবর্তী বছরের ফেব্রুয়ারিতে জননিরাপত্তা বিভাগকে নির্দেশ দেওয়া হয়। জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে একজন পিসি এবং ৯ জন আনসার নির্ধারণ করে তাদের জন্য ১০০ কোটি ৬০ লাখ টাকার একটি সম্ভাব্য ব্যয় অনুমোদনের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। জবাবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়, প্রস্তাবটি অনেক ব্যয়বহুল।

হেলালুদ্দীন বলেন, সরকারের যে আদেশ নির্দেশ যা কিছু আসুক না কেন ইউএনও এগুলো বাস্তবায়ন করে থাকে। বাস্তবায়ন করতে গেলে অনেক সময় অনেক জনের বিরাগভাজন হতে হয়। এটা ২০১৭ সাথে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনে জেলা প্রশাসকরা এই বিষয়টা উপস্থাপন করেছিলেন যে ইউএনওদের যেন ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বিধান করা হয়। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসকের কার্যবিবরণীতে এটা অনুমোদন প্রাপ্ত হয়। এবং মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ থেকে জননিরাপত্তা বিভাগকে অনুরোধ করা হয় যে ইউএনও দের নিরাপত্তা বিধানটা যে অনুমোদন করা হয়।

তিন বছরেও প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন না হওয়ার প্রশ্নটি এড়িয়ে গিয়ে পর্যায়ক্রমে নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী কিন্তু আনসার ব্যাটেলিয়ন তৈরি করার নির্দেশনা আমাদেরকে দিয়েছেন এই নিরাপত্তার জন্য। পর্যায়ক্রমে আমরা এ বিষয়ের ব্যবস্থা নিচ্ছি।

বর্তমানে দেশের ৪৯২টি উপজেলার মধ্যে শতাধিক জায়গায় নারী ইউএনও দায়িত্ব পালন করছেন।