Bangladesh Dhaka

বার বার অভিযোগ,ভয়াবহ বিস্ফোরণের পর লোক পাঠালো তিতাস

নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা এলাকায় বায়তুস সালাত জামে মসজিদের সামনে  মসজিদের এসি বিস্ফোরণে ৪০ জন মুসল্লি দগ্ধ হয়েছেন। এদিকে স্থানীয়রা বলছেন মসজিদের নিচে গ্যাসের লিকেজের কারণের এই বিস্ফোরণের তীব্রতা বেড়েছে। এদিকে এমন ভয়াবহ দুর্ঘটনার পর এখন তিতাস কর্তৃপক্ষ গ্যাস লিকেজ ঠিক করতে বিস্ফোরণে প্রায় ধংস্প্রাপ্ত মসজিদে শ্রমিক পাঠিয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের এহেন আচরণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। 

স্থানীয়রা সময় সংবাদের প্রতিবেদককে  বলেন, মসজিদ বন্ধ থাকা অবস্থায় ভিতরে গ্যাসের লিক হয়ে যায়। পুরো মসজিদের কক্ষটি গ্যাস চেম্বারে পরিণত হয়। এরপরেই এসির বিস্ফোরণ। আর সঙ্গে সঙ্গে গ্যাসের এমন অবস্থা থাকায় বিস্ফোরণের মাত্রা তীব্র হয়। অনেক দিন ধরেই এই মসজিদের নিচ দিয়ে যাওয়া তিতাস গ্যাসের লাইন লিক হয়ে গেছে এমন অভিযোগ তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ জানানো হলেও তারা কিছুই করেনি। তারা আরও জানান, মাঝেই মাঝেই মসজিদের ভিতরের গ্যাসের কটু গন্ধ পাওয়া যেতো। কিন্তু তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের কোন টনক নরেনি। 

এদিকে ভয়াবহ এই বিস্ফোরণের ঘটনায় আহতদের মধ্যে ৩৭ জনকে শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।  উল্লেখ   শুক্রবার (০৪ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টার দিকে মসজিদের সামনের ট্রান্সফরমার বিস্ফোরণ ঘটে। মুহূর্তের মধ্যে মসজিদের ৬টি এসিও বিস্ফোরণ ঘটে।