Cricket খেলাধুলা

বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফরের সূচি নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা

বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফরের সূচি নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। জটিলতা আছে কোয়ারেন্টিনের সময়সীমা নিয়েও। বিষয়টি নিয়ে ২-১ দিনের মধ্যেই এসএলসি তাদের অবস্থান পরিষ্কার করবে বলে জানিয়েছেন বিসিবি’র প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। সঙ্গে এই জটিলতার কোনো প্রভাব ম্যাচের সূচিতে পড়বে না বলেও প্রত্যাশা তার।

প্রায় দুই মাস ছুঁইছুঁই ঐচ্ছিক অনুশীলনে টিম টাইগার্স। লক্ষ্য একটাই, শ্রীলঙ্কা সফর। যে ট্যুরকে সামনে রেখে একটা খসড়া সূচিও তৈরি করে রেখেছিলেন নির্বাচকরা। তবে সব যেন ওলটপালট হওয়ার শঙ্কা।

আরও পড়ুনঃ বড় জয় দিয়ে মৌসুম শুরু আর্সেনালের

লঙ্কান মন্ত্রণালয়ের সাফ নির্দেশ, বিদেশি যে কারো ক্ষেত্রে মানতে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন। বিসিবি কোনোভাবেই ৭ দিনের বেশি থাকতে আগ্রহী নয়। তাইতো এই ইস্যুতে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। প্রধান নির্বাহী বললেন, এ নিয়ে সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরো কয়েকদিন।

নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড আমাদেরকে জানিয়েছে যে, তারা তাদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। বিশেষ করে কোয়ারেন্টাইনের নিয়মগুলো নিয়ে কথা বলছে। শ্রীলঙ্কাতেও কোয়ারেন্টাইনের নানা নিয়ম করা হচ্ছে। যদি ৭ দিনের মধ্যে সীমাবদ্ধ করা যায় তাহলে আমাদের যেভাবে প্ল্যান করা আছে সেভাবে আমরা এগোতে পারবো।

এখানেই শেষ নয়। জটিলতা আছে আরো একটা। বাংলাদেশের বেশ কিছু কোচিং স্টাফ নিজ দেশ থেকে সরাসরি যোগ দেবেন শ্রীলঙ্কায়। তাদের ব্যাপারে করণীয় নিয়েও সিদ্ধান্ত হয়নি এখনও।

এ বিষয়ে বিসিবি’র প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, যারা টিমের সাথে যাবেন, তাদের এক রকম প্রোটোকল। যারা আলাদা যাবেন তাদের আরেক রকম প্রোটোকল। এ বিষয়গুলো যখন আমরা ক্লিয়ার হবো, তখনই কেবল বলতে পারবো। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের ফিডব্যাকটা পেলেই এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো যাবে।

এদিকে, এখনও লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড থেকে এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে দেশটির প্রিমিয়ার লিগে বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেটারের খেলানোর ব্যাপারে কোনো প্রস্তাব দেওয়া হয়নি। প্রস্তাব দেওয়া হলে তারপর বিষয়টি ভেবে দেখা হবে বলে জানান বোর্ডের এই কর্তা।

সুজন বলেন, আমাদের কাছে ফরম্যালি কিছু আসেনি। আসলে তখন আমরা বিষয়টা দেখবো।