আন্তর্জাতিক

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ৯৭৫৭০ জন, ভয়াবহ সংক্রমণের শঙ্কা

দিন দিন বাড়ছে ভারতে দৈনিক করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। ভারতের মোট আক্রান্ত ইতিমধ্যেই ছাড়িয়ে গিয়েছে সাড়ে ৪৬ লক্ষ। এর মধ্যে ১০ লক্ষ আক্রান্ত কেবলমাত্র মহারাষ্ট্রেই।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৯৭ হাজার ৫৭০ জন নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। ওই সময়ের মধ্যে আমেরিকা ও ব্রাজিলে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা যথাক্রমে ৪৭ হাজার ১৫৪ ও ২৩ হাজার ৮৬৪ জন। গত এক মাস ধরেই ওই দু’টি দেশের তুলনায় ভারতের নতুন সংক্রমণ অনেক বেশি সংখ্যায় হচ্ছে। গত কয়েক দিনে তা দুই থেকে তিন গুণ হয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ শান্তিতে নোবেলের মনোনয়ন পেলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

সাড়ে ৯৭ হাজার বৃদ্ধির জেরে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৪৬ লক্ষ ৫৯ হাজার ৯৪৮ জন। প্রথম স্থানে থাকা আমেরিকায় মোট আক্রান্ত ৬৪ লক্ষ ৪৪ হাজার ও তৃতীয় স্থানে থাকা ব্রাজিলে মোট আক্রান্ত ৪২ লক্ষ ৩৮ হাজার।

মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ ও কর্নাটক— দৈনিক আক্রান্ত বৃদ্ধিতে দেশের মধ্যে এগিয়ে এই তিনটি রাজ্য। গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে নতুন সংক্রমণ সাড়ে ২৪ হাজারের বেশি। যার জেরে সেখানকার মোট আক্রান্ত ১০ লক্ষ ছাড়িয়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশে প্রায় ১০ হাজার ও কর্নাটকে সাড়ে ৯ হাজার নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন। উত্তরপ্রদেশেও দৈনিক আক্রান্ত বিগত কয়েক দিন ধরে সাড়ে ছ’হাজার ছাড়িয়ে যাচ্ছিল। আজ তা ৭ হাজার ছুঁয়েছে। দৈনিক সংক্রমণে নতুন করে চিন্তা বাড়াচ্ছে ভারতের রাজধানী। জুলাইয়ের শেষ ও আগস্টে সেখানে দৈনিক সংক্রমণ কমে এক হাজারের ঘরে নেমেছিল। গত ক’দিন ধরেই তা বেড়ে চার হাজার ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

দৈনিক সংক্রমণের পাশাপাশি দৈনিক মৃত্যুতেও এখন অন্যান্য দেশের থেকে এগিয়ে ভারত। মোট মৃত্যুর নিরিখে বিশ্বের তৃতীয় স্থানে থাকলেও, প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে থাকা আমেরিকা ও ব্রাজিলের তুলনায় ভারতে মোট মৃত্যু অনেক কম। পাশাপাশি ওই দেশগুলির তুলনায় ভারতে মৃত্যুর হারও অনেকটাই কম। পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার জেরে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২০১ জনের। এ নিয়ে দেশে মোট ৭৭ হাজার ৪৭২ জনের প্রাণ কাড়ল করোনাভাইরাস। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রেই মারা গিয়েছেন ২৮ হাজার ৭২৪ জন। দ্বিতীয় স্থানে থাকা তামিলনাড়ুতে মোট মৃত্যু ৮ হাজার ২৩১। তৃতীয় স্থানে থাকা কর্নাটকে মৃতের সংখ্যা ৭ হাজার ছাড়িয়েছে। দেশের রাজধানীতে সংখ্যাটা ৪ হাজার ৬৮৭। অন্ধ্রপ্রদেশে (৪,৭৭৯), উত্তরপ্রদেশ (৪,২৮২), পশ্চিমবঙ্গ (৩,৮২৮) ও গুজরাত (৩,১৮০) মৃত্যু তালিকায় উপরের দিকে রয়েছে। পঞ্জাবে মোট মৃত্যু দু’হাজার ছাড়িয়ে বেড়ে চলেছে। মধ্যপ্রদেশ (১,৬৯১) ও রাজস্থানেও (১,২০৭) মোট মৃত্যু বেড়ে চলেছে। এর পর তালিকায় রয়েছে তেলঙ্গানা, হরিয়ানা, জম্মু ও কাশ্মীর, বিহার, ওড়িশা, ঝাড়খণ্ড, ছত্তীসগঢ়, উত্তরাখণ্ড, গোয়া, ত্রিপুরার মতো রাজ্যগুলি।

তবে আক্রান্ত ও মৃত্যু সংখ্যার মধ্যেই আশার আলো কোভিড রোগীদের সুস্থ হয়ে ওঠা। এখনও পর্যন্ত ভারতে মোট ৩৬ লক্ষ ২৪ হাজার ১৯৬ জন করোনার কবল থেকে মুক্ত হয়েছেন। অর্থাৎ দেশে মোট আক্রান্তের ৭৭.৭৭ শতাংশই সুস্থ হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে সুস্থ হয়েছেন ৮১ হাজার ৫৩৩ জন।