জাতীয়

রোহিঙ্গা সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধানে বাংলাদেশের পাশে থাকবে যুক্তরাষ্ট্র

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন করে রোহিঙ্গা সংকটের শান্তিপূর্ণ সমাধানে যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন অব্যাহত রাখার কথা বলেছেন দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক টি এসপার।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী শুক্রবার সন্ধ্যায় শেখ হাসিনাকে ফোন করেন বলে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের উদারতা প্রদর্শনের প্রশংসা করেন এবং এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান। রোহিঙ্গা সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধানে তার দেশের সমর্থন অব্যাহত রাখার আশ্বাস দেন তিনি।”

পরবর্তী মহামারির জন্য প্রস্তুত হোক বিশ্ব, হুঁশিয়ারি ‘হু’-র

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব বলেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী এসপার বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বিদ্যমান প্রতিরক্ষা সহযোগিতা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন। প্রতিরক্ষা খাতে সহযোগিতা সম্প্রসারণে উচ্চ পর্যায়ে সংলাপ ও আলোচনা অব্যাহত রাখার বিষয়ে একমত প্রকাশ করেন তারা।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের সময় যুক্তরাষ্ট্রকে সহযোগিতা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান এসপার। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে প্রাণহানিতে শোক প্রকাশ করেন এবং করোনাভাইরাস মোকাবেলায় বাংলাদেশকে সমর্থন দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানান।

কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবজনিত জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলায় দুই দেশ ঘনিষ্ঠভাবে কাজ চালিয়ে যাবে বলে প্রধানমন্ত্রী ও মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে প্রত্যার্পণে প্রতিরক্ষামন্ত্রী এসপারের সহযোগিতা কামনা করেন।

“মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী এ ব্যাপারে সহযোগিতা করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে আশ্বাস দেন,” বলেছেন প্রেস সচিব ইহসানুল করিম।

এছাড়া জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের ভূমিকার প্রশংসা করেন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। গত মাসে বৈরুত বন্দরে বিস্ফোরণে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজের ক্ষয়ক্ষতিতে দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি।

শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশ তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা অব্যাহত রাখবে বলে আশা প্রকাশ করে এসপার বলেন, “যুক্তরাষ্ট্র এ বিষয়ে সমর্থন দিয়ে যাবে।”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন জাতীয় নির্বাচন নিয়ে কথা বলেন এবং নির্বাচন যথাযথভাবে অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

এসপার বলেন, তার সরকার বাংলাদেশের বর্তমান বন্যা পরিস্থিতি অথবা ভবিষ্যতে যে কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় সাহায্য করতে প্রস্তুত রয়েছে।