আন্তর্জাতিক

শ্রীলঙ্কায়ও নিষিদ্ধ হতে পারে গরু হত্যা

ভারতের মতো শ্রীলঙ্কায়ও ভবিষ্যতে গো-হত্যা নিষিদ্ধ হতে পারে। দেশটির শাসক দল শ্রীলঙ্কা পোদুজানা পেরামুনা (এসএলপিপি) এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব গ্রহণ করেছে। সম্প্রতি এ নিয়ে দলের সংসদীয় কমিটির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মহিন্দা রাজাপকসে আলোচনা করেছেন বলে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এবিপি আনন্দের খবরে বলা হয়েছে।

শ্রীলঙ্কায় ৭৭ শতাংশ মানুষ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী। তারা গরুকে পবিত্র বলে মনে করেন। এছাড়া হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনও গরুর মাংস খায় না।

আরও পড়ুনঃ শান্তিতে নোবেলের মনোনয়ন পেলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

শ্রীলঙ্কা মন্ত্রিসভার মুখপাত্র তথা সংবাদমাধ্যমের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী কেহেলিয়া রামবুকওয়েলাকে উদ্ধৃত করে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী দলীয় বৈঠকে গো হত্যা নিষিদ্ধের বিষয়ে প্রস্তাব দিয়েছেন এবং আশা করি গবাদি পশু হত্যা নিষিদ্ধ করা যাবে।

এই বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী সরকারের সামনেও পেশ করবেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসের দফতর সূত্রের বরাতে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এখনও গবাদি পশু হত্যা নিষিদ্ধের বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে কোনও প্রস্তাব তাদের কাছে জমা পড়েনি। অদূর ভবিষ্যতে গবাদি পশু-হত্যা নিষিদ্ধ করা হবে এমন কোনও নথিও তৈরি করা হচ্ছে না।

বছর দুয়েক ধরে তামিল অধ্যুষিত উত্তর শ্রীলঙ্কায় হিন্দুরা গোহত্যা নিষিদ্ধের দাবিতে সরব হয়। সিংহলিদেরও কেউ কেউ সম্প্রতি এই দাবি তুলতে শুরু করেছে। এরই প্রেক্ষিতে প্রশাসনের একাংশ ধারণা করছে, এই দাবির প্রতি লক্ষ্য রেখেই ক্ষমতাসীন এসএলপিপি গবাদি পশু-হত্যা নিষিদ্ধের বিষয়ে উদ্যোগী হতে পারে।