Cricket খেলাধুলা

সিপিএলে চ্যাম্পিয়ন খেলোয়াড়, আইপিএলে কোচ তিনি

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) খেলোয়াড় হিসেবেই অংশ নেয়ার কথা ছিল ৪৮ বছর বয়সী লেগস্পিনার প্রবীণ তাম্বের। কিন্তু নিয়মের মারপ্যাঁচে পড়ে তাকে এখন কোচের দায়িত্ব পালন করতে হবে আইপিএলে। অথচ সপ্তাহখানেক আগেও ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) খেলোয়াড় হিসেবে শিরোপা জিতেছেন তিনি।

এবারের আইপিএলের নিলামে ভিত্তিমূল্য ২০ লাখ রুপি দিয়ে তাম্বেকে কিনে নিয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। কিন্তু অবসরের আগেই অন্য দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলায়, তার খেলোয়াড় হিসেবে আইপিএলে অংশগ্রহণের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে আয়োজকরা।

আরও পড়ুনঃ সালাহ এখন বার্সেলোনার মূল লক্ষ্য

আইপিএল থেকে নিষিদ্ধ হলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের সিপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের মালিকের আরেক দল ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সে খেলেছেন তাম্বে এবং জিতেছেন শিরোপা। সফল সিপিএল শেষ করে আইপিএলে ঠিকই যোগ দিচ্ছেন তিনি কিন্তু খেলোয়াড় নয়, কলকাতার কোচিং স্টাফের অংশ হিসেবে।

কেকেআরের প্রধান নির্বাহী ভেংকি মাইশোর নিশ্চিত করেছেন, এবারের আইপিএল কলকাতার খেলোয়াড় সাহায্য করার জন্য কোচিং স্টাফের সঙ্গে থাকবেন ৪৮ বছর বয়সী প্রবীণ তাম্বে। মূলত ভক্ত-সমর্থকদের প্রবল দাবীর মুখে এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে কেকেআর টিম ম্যানেজম্যান্ট।

ত্রিনবাগোর হয়ে খেলার সময় তাম্বের স্পৃহা ও কর্ম তৎপরতায় মুগ্ধ হয়েছে কেকেআর এবং তাকে দলের নেয়ার জন্য ভক্তদের কাছ থেকেও মিলেছে অনেক আবেদন। তাই এবারের আইপিএলে তাম্বেকে দলের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছে। কেকেআরের সিইওর আশা, আমিরাতের স্পিন ফ্রেন্ডলি কন্ডিশনে তাম্বের অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে।

কেকেআরের এক লাইভ সেশনে তাম্বের প্রশংসায় ভেংকি মাইশোর বলেছেন, ‘প্রবীণ তাম্বে একটা নতুন দ্বার উন্মোচন করেছেন। তার মতো বয়সের একজনের জন্য এটি সহজ বিষয় নয়। কিন্তু মাঠে কিংবা মাঠের বাইরে দলের মধ্যে দারুণ এক প্রাণশক্তি বয়ে আনেন তিনি। ত্রিনবাগোতে তার ইতিবাচকতা ব্যাপক আলোচিত ছিল। সবসময় নিজেকে উজাড় করে দিতে বদ্ধ পরিকর তাম্বে।’

এসময় তাম্বেকে কোচিং স্টাফে যোগ করার কথা জানিয়ে কেকেআর সিইও আরও বলেন, ‘ভক্তদের প্রবল দাবির মুখে ঠিক করা হয়েছে যে, সে আমাদের সঙ্গে যোগ দেবে এবং খেলোয়াড়দের সাহায্য করবে। তার উপস্থিতি দলে একটা ইতিবাচক পরিবেশ সৃষ্টি করবে। এছাড়াও এমন কন্ডিশনে তার অভিজ্ঞতাও কাজে দেবে বলে মনে করি।