Bangladesh Dhaka

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আ.লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে অস্ত্রের মহড়া

রায়হান জামান, কিশোরগঞ্জ সংবাদদাতা: কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় উপজেলায় অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ঘন্টাব্যাপী ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ইট পাটকেলে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পুলিশ ও স্থানীয় একাধিক সূত্র জানায়, পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের বরখাস্তকৃত চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম রেণু হাইকোর্ট থেকে স্বপদে বহালের আদেশ পান। এ আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি রোববার দুপুরে ঢাকা থেকে পাকুন্দিয়ায় আসেন।

সমর্থকসহ তিনি পাকুন্দিয়া সদরে আসার আগেই প্রতিপক্ষ স্থানীয় সংসদ সদস্যের গ্রুপটি উপজেলা পরিষদের সামনে অবস্থান নেয়। এ সময় তারা সাবেক আইজিপি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য নূর মোহাম্মদের নামে বিভিন্ন স্লোগানও দেয়।

জুয়ার বিরুদ্ধে অভিযান, আটক ৫

একপর্যায়ে দেশীয় অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট পাটকেল নিক্ষেপ শুরু হয়। ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সংসদ সদস্য নূর মোহাম্মদের সমর্থক জেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের উপদেষ্টা আতাউল্লাহ সিদ্দিক মাসুদ বলেন, সংসদ সদস্য নূর মোহাম্মদের নেতৃত্বে আমরা শান্তিপূর্ণ অবস্থানে বিশ্বাসী। কিন্তু রফিকুল ইসলাম রেনু সমর্থকরা অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে উপজেলা পরিষদে ঢোকার চেষ্টা করেছিল। জনতা সেটা প্রতিহত করেছে।