Bangladesh Barishal

ক্লিনিকের ৮ দালাল আটক, ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাজা

বরিশাল নগরীর বাটারগলিতে অভিযান চালিয়ে ৮ রোগীর দালালকে আটক করেন জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তাদের বিচার ব্যবস্থার মুখোমুখি করে প্রত্যেককে এক মাস করে কারাদণ্ড দেন অভিযানে নেতৃত্বদানকারী জেলা প্রশাসনের সহকারি ম্যাজিস্ট্রেট নিরুপম মজুমদার।

সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে নগরীর সদর রোডের বাটার গলিতে অভিযান চালিয়ে ওই ৮ জনকে আটক করে ডিবি পুলিশ। এরপর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিরুপম মজুমদার এ ৮ জনের প্রত্যেককে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

এই অভিযান ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বরিশালে বেশির ভাগ চিকিৎসক প্রাইভেট প্রাকটিস করেন নগরীর সদর রোড এলাকায়। এ কারণে এ এলাকায় রয়েছে বেশির ভাগ ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিক। গ্রাম থেকে শহরে আসা রোগী ও স্বজনদের একটি চক্র বাস ও লঞ্চ টার্মিনাল এলাকা থেকে ভুল বুঝিয়ে নিয়ে যায় নাম পরিচয়হীন চিকিৎসকদের কাছে। বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে তাদের অপ্রয়োজনীয় পরীক্ষা নিরীক্ষা করে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে তারা। এভাবে দিন দিন প্রতারিত হয়ে আসছিল গ্রাম থেকে শহরে চিকিৎসার জন্য আসা সহজ সরল মানুষেরা। তাদের প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা করতেই চালানো হয় এ অভিযান।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, সহকারি ম্যাজিস্ট্রেট নিরুপম মজুমদারের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমাণ আদালত বাটারগলিতে হানা দিয়ে ডিবি পুলিশের সহায়তায় ৮ দালাল আলমগীর হোসেন (৩২), মাসুম (৪০), সাবু হাওলাদার (৫০), হানিফ হাওলাদার (৪০), আনোয়ার হোসেন (৪৫), শাহীন মৃধা (৩৫), জামাল হোসেন (৩০) এবং আনেয়ার হোসেনকে (৪০) হাতেনাতে আটক করেন। পরে বিচার ব্যবস্থার মাধ্যমে তাদের প্রত্যেককে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।