Life Style

পিরিয়ডের সময় কোমরে ব্যথা? কমাতে ঘরোয়া কিছু উপায়

প্রতিমাসের নির্দিষ্ট এই দিনগুলো বেশিরভাগ মেয়ের কাছেই ভোগান্তির নাম। শরীর ও মনের ওপর এর প্রভাবের কারণে এসময় অনেক কাজই ঠিকভাবে করা সম্ভব হয় না। স্বাভাবিক দিনগুলোর থেকে কয়েকগুণ বেশি সমস্যা পোহাতে হয় এই দিনগুলোতে। এদিকে আধুনিক এই সময়ে সবার এই বিষয় নিয়ে যতটা সচেতন হওয়া উচিত, ততটা হচ্ছে না। বলছি পিরিয়ডের কথা। এই সময়ে শারীরিক যেসব সমস্যা দেখা দিতে পারে তার মধ্যে একটি হলো কোমরে ব্যথা। এই অসহ্য ব্যথা তাড়াতে অনেকে দ্বারস্থ হন পেইন কিলারের। কিন্তু নিয়মিত ব্যথানাশক খেলে তার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে। পিরিয়ডের সময়ে কোমর ব্যথা দূর করার ঘরোয়া কিছু উপায় প্রকাশ করেছে বোল্ডস্কাই।

আদা
আদার অনেক গুণ। সেকথা প্রায় সবাই জানে। এটি পিরিয়ডের সময় কোমর ও পিঠের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। নারী শরীরের যে হরমোন ব্যথার কারণ, তার ক্ষরণ আটকায় এই আদা। চায়ে কিংবা গরম পানিতে আদা থেতো করে মিশিয়ে খেতে পারেন।

আরও পড়ুনঃ ডা. সাবরিনার আইনজীবীদের সব নথি দেয়ার নির্দেশ

স্বাস্থ্যকর খাবার
পিরিয়ডের সময় বাইরের খাবার একদমই বাদ দিন। এই জতীয় খাবার বাড়িয়ে দেয় পিঠ ও কোমরের ব্যথা। বাদ রাখুন ভাজাভুজিও। বেছে নিন ফলজাতীয় খাবার, যাতে আছে প্রচুর পানি ও খনিজ পদার্থ। ফলের মধ্যে কলা বেশি করে খান কারণ এটি পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাবার। এছাড়াও পাতে রাখুন শাকসবজি। শরীরে এই সময় প্রয়োজন আয়রনসমৃদ্ধ খাবার। বেদানা, খেজুর ইত্যাদি ফল রাখুন খাবারের তালিকায়।

আরও পড়ুনঃ ডা. সাবরিনার আইনজীবীদের সব নথি দেয়ার নির্দেশ

ভেষজ চা
চায়ে পিপারমিন্ট ফুটিয়ে ভালো করে ছেঁকে নিয়ে খান, এতে পিঠ ও কোমরের ব্যথা অনেকটা কমবে। এছাড়াও খেতে পারেন লেবু চা। আদা চাও সমান উপকারী। এসব চা পিরিয়ডের সময় ক্লান্তিভাব কমাতে সাহায্য করে ও শরীরকে সতেজ রাখে।

পানি
এসময় প্রচুর পানি পান করুন। শরীরের বিভিন্ন আন্তঃক্রিয়া সচল রাখতে ও খাবার ঠিকমত হজম রাখতে পানি পান করা জরুরি। পিরিয়ডের সময় ব্যথা হলে সেই পানি পানের পরিমাণ আরও বাড়াতে হবে।

ঘরোয়া এসব উপায়ে ব্যথা না কমলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।