Bangladesh Barishal

বিয়ের প্রলোভন দিয়ে মাদরাসাছাত্রীকে রাতভর ধর্ষণ, চারজনের বিরুদ্ধে মামলা

পটুয়াখালীর রাঙ্গবালী উপজেলায় বিয়ের প্রলোভন দিয়ে মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় প্রেমিকসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। রোববার রাতে ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে রাঙ্গাবালী থানায় এ মামলা করেন।

ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী সাজির হাওলা আকবাড়িয়া দাখিল মাদরাসার নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। মামলায় প্রেমিক রনি হাওলাদার ও তার বাবা আলমগীর হাওলাদার এবং মাহাবুব হাওলাদার ও শফিক হাওলাদারকে আসামি করা হয়। তাদের বাড়ি উপজেলার ছোটবাইশদিয়া ইউপির হরিদ্রাখালী গ্রামে।

আরও পড়ুনঃ নড়াইলে ছাত্রলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় ১৪ জনের নামে মামলা

মামলার বিবরণ ও ধর্ষিতার পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ১৭ আগস্ট বিয়ের প্রলোভন দিয়ে এক তরুণীকে কুয়াকাটা পর্যটন এলাকায় নিয়ে যায় রবিন হাওলাদার। সেখানে গিয়ে সাগর আবাসিক হোটেলে একদিন একরাত অবস্থান করেন। এ সময় তাকে হোটেল কক্ষে আটকে রাতভর ধর্ষণ করে রবিন। সকাল হলে তরুণীকে কুয়াকাটা ফেলে রেখে পালিয়ে যায় সে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় বাড়ি ফিরে যায় ওই তরুণী। এর আগে তরুণীর বাড়িতেও একধিকবার ধর্ষণ করা হয়। কিন্তু বিয়ের আশ্বাস দেয়ার কারণে রবিনের বিরুদ্ধে মুখ খুলেনি সে। কুয়াকাটায় হোটেলে ধর্ষণের ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে স্থানীয় প্রভাবশালীদের সহযোগিতায় ওই তরুণীকে অপহরণ করে লুকিয়ে রাখে রবিনের লোকজন। যার কারণে এতদিনেও মামলা করতে পারেনি ধর্ষিতার পরিবার। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার হলে থানায় গিয়ে মামলা করা হয়।

রাঙ্গাবালী থানার ওসি আলী আহম্মেদ জানান, ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা রেকর্ড হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। অন্যদিকে ওই তরুণীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।