Politics

দুঃসময়ের কর্মীদের মূল্যায়নের নির্দেশনা দিয়েছেন দলীয় সভানেত্রী

টানা তিন মেয়াদে সরকার গঠন করে বেশ ফুরফুরে মেজাজে রয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। শক্তিশালী প্রতিপক্ষ না থাকায় রাজপথ দখলসহ রাজনীতিতে একক আধিপত্য ধরে রেখেছে দলটি। অবশ্য টানা তিন মেয়াদে ক্ষমতায় থাকার কারণে কিছু অনুপ্রবেশকারী ঢুকে পড়েছে দলে। তবে তাদের বাদ দিয়ে বিভিন্ন কমিটিতে ত্যাগীদের মূল্যায়নের নির্দেশনা দিয়েছেন দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে দলেরর সভাপতিমণ্ডলীর এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সাংগঠনিক পরিস্থিতি, জেলা, মহানগর, দলের সহযোগী সংগঠনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি, বিষয়ভিত্তিক বিভিন্ন উপকমিটি গঠনের নিদের্শনা দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। নেতাদের হুঁশিয়ার করে পুর্ণাঙ্গ কমিটিতে যেন ১/১১ দুঃসমেয়র কর্মীরা স্থান পান সেটা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, সভায় দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রহমান বলেন, আসন্ন জেলা-উপজেলা মহানগরের কমিটি গঠনের জন্য দলের নিবেদিত ও ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়নের করতে হবে। তার কথায় সায় দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বললেন, আমার দুর্দিনের কর্মীরা যেন কোনোভাবেই বাদ না পড়ে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। বিশেষ করে ২০০১ সাল ও ১/১১ সাল পর্যন্ত যারা দলের জন্য ঝুঁকি নিয়েছেন তারা যেন সঠিকভাবে মূল্যায়ন পায় সেদিকে নজর দিতে বিশেষ নিদের্শনা দেয়া হয়েছে।

সূত্র আরো জানায়, বিভাগীয় সাংগঠনিক সফরের জন্য একজন প্রেসিডিয়াম সদস্য, বিভাগীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সংশ্লিষ্ট্র সাংগঠনিক সম্পাদক, সম্পাদকম­লীর এক সদস্য এবং কার্যনির্বাহী সংসদের একজন সদস্যের সমন্বয়ে কমিটি করতে বলা হয়েছে।

এছাড়া চলমান বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের সেকেন্ড ওয়েভ তথা দ্বিতীয় পর্যায়ে সংক্রমণ বেড়ে গেলে দলীয়ভাবে করণীয় ও আগাম প্রস্তুতি নিয়ে বিশদ আলোচনা হয় বৈঠকে। সভায় উপস্থিত প্রেসিডিয়াম সদস্যরা তাদের মতামত ব্যক্ত করেন এবং করণীয় নির্ণয়ে পরামর্শ দেন। পাশাপাশি ৫টি উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের বিজয়ের লক্ষ্যে সবাইকে কাজ করার নির্দেশনা দিয়ে নির্বাচন যাতে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য হয় সেদিকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দেন দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকে প্রেসিডিয়াম সদস্যরা তাদের অভিমত তুলে ধরেন। মহামারি করোনার ধাক্কায় অর্থনীতির চাকা সচল রাখায় সরকার প্রধান শেখ হাসিনাকে দলের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানানো হয়।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বৈঠকে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফরউল্লাহ, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, নুরুল ইসলাম নাহিদ, ড. আবদুর রাজ্জাক, কর্নেল (অব.) মুহম্মদ ফারুক খান, রমেশ চন্দ্র সেন, আবদুল মতিন খসরু, আবদুল মান্নান খান, শাজাহান খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে প্রেসিডিয়ামের দুই সদস্য মোহাম্মদ নাসিম ও অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।