Bangladesh

রাস্তা দখল করে ইউপি চেয়ারম্যানের ভাইয়ের দোকান ঘর নির্মাণ

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার চাঁদহাট বাজারে সরকারি বরাদ্দের রাস্তা দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করছেন চরযশোরদী ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই তারেক তালুকদার। এদিকে গুরুত্বপূর্ণ এ রাস্তার পুরোটাই দখল করে ঘর নির্মাণ করায় ভোগান্তিতে পড়েছেন ঘর মালিক, ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চাঁদহাট বাজারের মেইন রাস্তা থেকে পেঁয়াজ হাটে যাওয়ার একমাত্র সরকারি বরাদ্দকৃত পাকা রাস্তা দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করেন চরযশোরদী ইউপি চেয়ারম্যানের ভাই তারেক তালুকদার। যার ফলে পেঁয়াজ বাজারে যাওয়ার জনবহুল গুরুত্বপূর্ণ একমাত্র রাস্তাটি বন্ধ হয়ে যায়। ওই রাস্তায় ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলা প্রকৌশলী অধিদপ্তর থেকে একাধিকার সরকারি বরাদ্দে উন্নয়ন কাজও সম্পূর্ণ হয়েছে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুনঃ নাটক করে পেঁয়াজের চালান আটকে রেখেছে ভারত

পেঁয়াজ বাজারের একমাত্র রাস্তাটি সচল রাখতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে লিখিত অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। তারা জানান, এ রাস্তাটি বন্ধ হলে একদিকে যেমন পেঁয়াজ বাজারের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হবে অন্যদিকে ৪০টি দোকান বন্ধ হওয়ার উপক্রম রয়েছে।

রুমন নামের এক পথচারী বলেন, বহু বছর ধরে এ রাস্তা দিয়ে আমরা পেঁয়াজ বাজারে যাতায়াত ও চলাচল করছি। এখন হঠাৎ করে সেখানে দোকানঘর নির্মাণ কাজ শুরু হওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হতে চলেছে। এতে বাজারের একটি অংশে যাতায়াত বন্ধ ও পেঁয়াজ বাজারের ক্রেতা বিক্রেতাদের চলাচলে অসুবিধা হলেও চেয়ারম্যানের ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করছে না।

640.jpg

চাঁদহাট বাজার কমিটির সভাপতি দুলাল মোল্যা বলেন, চেয়ারম্যানের ভাই তারেক তালুকদার যে জায়গা তার বলে দাবি করছেন সেটি চাঁদহাট বাজারের মেইন রাস্তার মধ্যে পড়ে গেছে। এখন অন্য দাগে এসে সেই অংশের দাবি তুলছেন। যে রাস্তার উপর ঘর তুলছেন সেটি মূলত চঁদহাট বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের জায়গায়। আর পেঁয়াজ বাজারের মার্কেটটি যেহেতু বিদ্যালয়ের নিজস্ব মার্কেট তাই মার্কেটের সুবির্ধাথে বিদ্যালয়ের জায়গার উপর দিয়েই রাস্তাটি করা হয়েছিল। এমনকি পেঁয়াজের গাড়ি যাতায়াতের সুবিধার জন্য সাম্প্রতিক এ রাস্তার ঢালাই কাজ শেষ হয়েছে।

এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করে তারেক তালুকদার বলেন, রাস্তা দখল করে নয়, আমার নিজস্ব জমির উপর দোকান ঘর নির্মাণ করছি। বর্তমানে রাস্তা হিসাবে ব্যবহৃত জায়গা আমার নিজস্ব সম্পত্তি।

এ বিষয়ে নগরকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেতী প্রু বলেন, সরকারি রাস্তা দখল করে কেউ দোকান নির্মাণ করলে তা অবশ্যই উচ্ছেদ করা হবে।