Life Style

টিকটক-এ সেক্সি মেয়েদের ভিডিও দেখে স্ত্রীর সাথে যৌনমিলন!

আমার বয়স ২৮ বছর ৷ আমার সঙ্গে আমার স্বামীর সম্পর্ক দারুণ ভালো ৷ একাধিকবার জিজ্ঞাসা করা সত্বেও আমার স্বামী বারংবার বলেছেন উনি পর্ন দেখেন না ৷ কিন্তু বিয়ের পর জানা গেল এক অন্য সত্য৷

আমরা নিয়মিত আমরা আমাদের যৌনজীবন নিয়ে কথা বলি ৷ কীসে কে যৌনমিলনে আগ্রহ পান তা নিয়েও খোলাখুলি কথা বলাতেই বিশ্বাস করি ৷ এরকমভাবেই একদিন শরীরি মিলনের জন্য যখন ছাদের ঘরে আমি আমার স্বামীর জন্য অপেক্ষা করছিলাম তখন অনেকটা বাদে তিনি ওপরের ঘরে আসেন ৷

আমারা শারীরিক মিলনে রত হওয়ার সময় আমার স্বামীকে আমাকে দেখান ফোনে তিনি অত্যন্ত রোগা ও সুন্দরী মেয়ের শরীরি বিভঙ্গ দেখে নিজেকে উত্তেজিত করেছিলেন ৷ তিনি টিকটকে এই ভিডিও দেখে নিজেকে উত্তেজিত করছিলেন ৷

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে কালো পতাকা মিছিলের ডাক আন্দোলনকারীদের

মেয়েটি আমার থেকে একেবারে একদম আলাদা ৷ আমাি সাধারণ মধ্যবিত্ত বাঙালি মেয়েদের মতো চেহারার ৷ মডেলদের সঙ্গে আমার লুকের কোনও মিল নেই৷ কিন্তু এরপর থেকে আমি মানসিকভাবে অস্বস্তিতে আছি ৷ কেমন যেন মনে হচ্ছে আমাকে নিয়ে উনি খুশি নন৷

মনোবিদের মতে এত ভেঙে পড়ার কিছু নেই৷ উনি রোগা সুন্দরীদের দেখেন মানে উনি যে আপনাকে পছন্দ করেন না এমন মানে নেই৷ ছেলেরা এরকম নানা জিনিসেই নিজেদের উত্তেজিত করতে পারেন ৷৷ রোগা মেয়েকে দেখা মানেই তাঁকেই ওঁর পছন্দ তার মানে নেই৷ উনি আপনাকে বিশেষ মুহূর্তটি উপহার দেওয়ার জন্য এ কাজ করেন ৷

640.jpg

তার চেয়ে বরং আপনি ভাবুন কীভাবে আপনার স্বামীর উত্তেজনা আপনি নিজেও আরও বাড়াতে পারেন ৷ টিকটক ভিডিও দেখা মানেই উনি সেই মেয়েগুলির প্রতি আসক্ত তাঁর কোনও মানে নেই ৷সুতরাং নিশ্চিন্ত থাকুন এবং নিজেদের দাম্পত্য জীবনের আনন্দ নিন ৷