Dhaka

বাস রুট রেশনালাইজেশন কমিটির বৈঠকে প্রতিনিধি পাঠানোর বিধান নেই

বাস রুট রেশনালাইজেশন কমিটির বৈঠকে প্রতিনিধি পাঠানোর কোনো বিধান রাখা হয়নি। কেউ প্রতিনিধি পাঠালে তাকে অনুপস্থিত হিসেবে বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) নগর ভবনের বুড়িগঙ্গা হলে গণপরিবহনে শৃঙ্খলা আনয়ন ও যানজট নিরসনে ‘বাস রুট রেশনালাইজেশন’ কমিটির সভার শুরুতে ডিএসসিসি মেয়র এসব কথা বলেন।

নারী নির্যাতনের দায়ীদের শিগগিরই আইনের মুখোমুখি করবো: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মেয়র তাপস বলেন, একটি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ১২ সদস্যবিশিষ্ট বাস রুট রেশনালাইজেশন কমিটি করা হয়েছে। সেই প্রজ্ঞাপনে যাদের নাম দেয়া আছে বা যে পদের বিপরীতে কমিটিতে সদস্য হিসেবে রাখা হয়েছে, এই বাস রুট রেশনালাইজেশন কমিটির বৈঠকে তাদেরকেই আসতে হবে। কারণ, প্রজ্ঞাপনে কোনো প্রতিনিধি বা উপযুক্ত প্রতিনিধি প্রেরণের বিধান রাখা হয়নি। এখন থেকে কেউ প্রতিনিধি পাঠালে আমরা ধরে নেব তিনি অনুপস্থিত। প্রতিনিধিকে উপস্থিতি হিসেবে আমরা দেখাব না।

এরপর কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে যানজট নিরসনে অচিরেই বাস কোম্পানি রেশনালাইজেশন এবং টার্মিনাল নির্মাণে অগ্রগতি হবে বলে উল্লেখ করেন ডিএনসিসি মেয়র।

তিনি আরও বলেন, আমাদেরকে আবারও নতুন করে কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করতে হবে। বাস রুট রেশনালাইজেশন এবং টার্মিনাল নির্মাণে সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের জন্য পরামর্শক নিয়োগের মাধ্যমে প্রতিবেদন আমরা হাতে পেলে আগামী সভা থেকে কাজ শুরু করবো। প্রতিবেদন হাতে পেলে এই কার্যক্রম আমরা বাস্তবভিত্তিক কার্যক্রমে পরিণত করতে পারবো।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র তাপস বলেন, আপনারা দেখেছেন এর আগেও সময়সীমার দিয়ে সেটা রক্ষা করা যায়নি। সুতরাং কোনো সময়সীমা না দিয়ে এটা বলতে পারি, আমরা অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে কাজ করে চলেছি। সেই নিষ্ঠার প্রতিফলন আপনারা পাবেন।

640.jpg

এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, শতকরা ৬৩ ভাগ মানুষ বাসে চলাচল করে। আমরা দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই আলোচনা করেছি। প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক যে চেষ্টা করেছিলেন সেই চেষ্টার ধারাবাহিকতায় ঢাকা সিটির দুই মেয়র আমরা এটাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব প্রদান করছি। এটার একটা রূপ অচিরেই দেখা যাবে। জনগণের স্বপ্ন বাস রুট রেশনালাইজেশনে দুই মেয়র একত্রে কাজ করবো, এই নিশ্চয়তা দিতে পারি।

ফজলে নূর তাপসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন রাজউক চেয়ারম্যান মো. সাঈদ নূর আলম, বিআরটিএ চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ মজুমদার, যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মো. আব্দুর রাজ্জাক, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্লাহ প্রমুখ।