Cricket খেলাধুলা

ধর্ষক কোনো পরিচয় বহন করে না, তারা চেহারা কুৎসিত :মাশরাফি

ধর্ষণের বিরুদ্ধে আন্দোলনে উত্তাল সারা দেশ। ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষেরা প্রতিবাদের নেমে এসেছেন রাজপথে। এতে শামিল হয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও। শুরুটা করেছিলেন সাকিব আল হাসান, এরপর একে একে অন্য ক্রিকেটাররা ধর্ষণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কথা বলতে থাকেন।

এবার মাশরাফি বিন মোর্ত্তজাও সেই কাতারে যুক্ত হলেন। তিনি জানালেন, ধর্ষকরা কোনো পরিচয় বহন করে না। তারা চেহারা বা মানসিকতায় কুৎসিত। আজ বুধবার দুপুরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে এমন মন্তব্য করেন মাশরাফি।

পরিবারের নারী সদস্যের উদাহরণ টেনে জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক ও সাংসদ মাশরাফি বললেন, এই সমস্যা মগজের। তার ভাষায়, ‘আপনার মেয়ে যখন আপনার কোলে বসে থাকে, তখন আপনার সেই অনুভূতি হয় না। যখন আপনার বোন আপনার পাশের রুমে থাকে, তখনও সেই অনুভূতি আসে না। আপনার স্ত্রীকে নিয়ে যখন আপনি ঘুরতে বেরোন, তখন তার দিকে বাঁকাভাবে তাকালে আপনার খারাপ লাগে। কিন্তু অন্যকে দেখার ক্ষেত্রে কি আমার, আপনার অনুভূতি একই রকম আছে? তা না হলে বুঝে নিতে হবে, সমস্যা অনেকের মগজেই।’

ধর্ষকদের কোনো পরিচয় নেই জানিয়ে মাশরাফি বলেন, ‘হয়তো পরিবেশ-পরিস্থিতির কারণে সবারটা প্রকাশ পায় না। আসুন মানসিকতা পরিবর্তন করি। নারীকে মাথা উঁচু করে বাঁচতে দিই। আর ধর্ষক কোনো পরিচয় বহন করে না। সে কুৎসিত; হয়তো চেহারায় নয়, মানসিকতায়।’

640.jpg

এর আগে গতকাল সাকিব আল হাসান ধর্ষণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ডাক দেন। এরপর মুশফিকুর রহিম ও রুবেল হোসেনরাও ধর্ষণের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলেন।