Politics

দলের চেয়ে নিজেকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন খালেদা

শর্তসাপেক্ষে মুক্তি লাভের পর এখন গুলশানের ভাড়া বাসা ফিরোজায় দিন পার করছেন দুর্নীতি মামলায় কারাভোগ করতে থাকা বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। জানা গেছে, সব রকমের রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে নিজেকে বিরত রেখেছেন তিনি। তবে খালেদার এমন নীরবতায় নাখোশ দলটির তৃণমূল থেকে উচ্চ পর্যায়ের একটি অংশ।

তারা বলছেন, দলের চেয়ে নিজের নিরাপত্তা ও আরাম-আয়েশকে বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন খালেদা জিয়া। এতে তার আপোষহীন নীতি প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। তার এমন এখন নীরবতায় দিশেহারা অবস্থায় বিএনপি। নীরব থাকার চেয়ে বৃহত্তর স্বার্থে খালেদা জিয়াকে দলীয় পদ ছেড়ে দেয়ার পক্ষেও মতামত দিয়েছেন তারা।

বিএনপির দলীয় গোপন সূত্র বলছে, দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ, এমনকি তাদের সঙ্গে কোনো কথাও বলতে চান না খালেদা জিয়া। এ অবস্থায় বিএনপিকে কেউ সঠিক নির্দেশনা দিতে পারছে না। এতদিন দলের কথা বললেও মূলত তিনি এখন নিজেকেই বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন।

আলুর খুচরা ৩০ পাইকারি মূল্য ২৫ টাকা, ডিসিদের নজরদারির নির্দেশ

তারেক রহমানও দলের চেয়ে নিজের ব্যাপারে বেশি সচেতন। দলকে তারা হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করেন বলেও তৃণমূল নেতাদের ক্ষোভ। দলের এমন দুরবস্থায় খালেদা জিয়ার অন্তত গোপন ম্যাসেজ দেয়া উচিত বলেও মনে করেন তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। তবে সেক্ষেত্রে গোপনীয়তা রক্ষা করা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন তারা। কারণ বিএনপির একাধিক সিনিয়র নেতার বিরুদ্ধে তথ্য-পাচারেরও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

640.jpg

এদিকে খালেদা জিয়ার ঘনিষ্ঠ একাধিক সূত্র বলছে, রাজনীতি নয়, আপাতত নিজের স্বাস্থ্য নিয়ে বেশি ভাবছেন খালেদা জিয়া। যে রাজনীতির জন্য তিনি জেল খেটেছেন, সেই রাজনীতি খালেদাকে আর টানে না। বিএনপির রাজনীতি নিয়ে চরম হতাশ তিনি। রাজনীতি বাদ দিয়ে বিদেশে গিয়ে উন্নত চিকিৎসা নেয়াই এখন তার মূল টার্গেট।