Cricket

হারের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে এল চেন্নাই

আইপিএলে এখন পর্যন্ত একমাত্র দল হলো চেন্নাই যারা প্রতিবারই আইপিএলে কোয়ালিফাই করেছে।
কিন্তু এবারই তাদের সামনে ভিন্ন কিছু ঘটনার চোখ রাঙানি দিচ্ছে। ৮ ম্যাচ শেষে মাত্র ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের ৬ নাম্বারে আছে তারা। এর আগে কখনওই ৮ রাউন্ড শেষে এত নীচে ছিল না ধোনির দলের।

গতকাল টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে নতুন ওপেনিং জুটি সাজায় তারা। ওয়াটসন কে ওপেনিং এ না পাঠিয়ে তার পরিবর্তে পাঠায় স্যাম কারান কে। বেশি রান করতে না পারলেও খুব দ্রুত রান তুলে নেয় সে। ৩১ রান করে সাজঘরে ফিরে কারান এবং আরেক ওপেনার ডু প্লেসিস রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফিরে।

আইপিএলের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জিতল রাজস্থান

পরের উইকেটে ওয়াটসন এবং আম্বাতি রাইডু মিলে ৮১ রানের পার্টনারশিপ করে ম্যাচে ফিরে চেন্নাই। যদিও ৬ বলের ব্যবধানে তারা ২ জন আউট হয়ে গেলে আবার চাপে পরে চেন্নাই।

সেখান থেকে পিচে আসে ধোনি এবং জাদেজা।
ধোনি ১৩ বলে ২১ রান করে নাতারাজানের বলে আউট হয়ে ফিরে যায়। তবে জাদেজা অপরাজিত থাকে ১০ বলে ২৫ রান করে। শেষ পর্যন্ত তারা ১৬৮ রানে টার্গেট দেয় হায়দ্রাবাদ কে।

এদিকে ১৬৮ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শুরু থেকেই চাপে ছিল হায়দ্রাবাদ। টপ অর্ডারের ২ ব্যাটসম্যান ওয়ার্নার এবং বেয়ারেস্টো কেউই বেশি রান করতে পারে নি। ওয়ার্নার ১৩ বলে ৯ রান এবং বেয়ারেস্টো ২৪ বলে করে ২৩ রান। পুরো দলে কেউই রান করতে পারেনি শুধু উইলিয়ামসন ছাড়া। উইলিয়ামসন ৩৯ বলে ৫৭ রান করেন।

উইলিয়ামসন পিচে থাকা অবস্থায় ম্যাচে মোটামুটি একটা অবস্থানে ছিল তারা। কিন্তু উইলিয়ামসন চলে যাওয়ার পর কার্যত ম্যাচ এখানেই শেষ হয়ে যায়। এরপর রাশিদ খান

640.jpg

একটু চেষ্টা করলেও সেটা দলের জন্য যথেষ্ট ছিল না। তিনি ৮ বলে ১৪ রান করেন। ম্যাচ সেরা হয় জাদেজা। ব্যাট হাতে দ্রুত ২৫ রানের পাশাপাশি বল হাতেও এক উইকেট নেয় তিনি।

এছাড়া বল হাতে ১ উইকেট নেন স্যাম কারান এবং ব্যাট হাতে তিনি রান করেন ৩১। এই  জয়ের জন্য ৬ নাম্বারে উঠে এল চেন্নাই এবং হায়দ্রাবাদের অবস্থায় ৫ নাম্বারে রয়েছে। ২ দলেরই পয়েন্ট সমান ৬ করে।