Bangladesh Sylhet

এমসি কলেজের পর রায়হানের হত্যাকারীদের পক্ষেও লড়বেন না আইনজীবীরা

সিলেটের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ এমসি কলেজের ছাত্রাবাস প্রাঙ্গণে প্রাইভেট কারের ভেতর পালাক্রমে ধর্ষণকারীদের পক্ষে আদালতে দাঁড়াননি সিলেটের কোনো আইনজীবী। এ সিদ্ধান্তে দেশ-বিদেশে প্রশংসা কুড়িয়েছেন তাঁরা। এবার সিলেটের আইনজীবীরা নিয়েছেন আরেকটি যুগান্তকারী উদ্যোগ। সিলেট নগরের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে নিহত রায়হান উদ্দিনের (৩৫) হত্যাকারীদের পক্ষে না দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন জেলা আইনজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দ। তবে এ হত্যা মামলায় বাদীর পক্ষে রায়হানের পরিবারকে সর্বাত্মক আইনি সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

শনিবার সন্ধ্যায় নগরের আখালিয়া এলাকার নেহারিপাড়ায় নিহত রায়হানের বাসায় অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট এটিএম ফয়েজ এবং সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফজলুল হক সেলিম এ কথা জানান। এ সময় জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাহী পরিষদের অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সিলেটের মুরারিচাঁদ কলেজের (এমসি) ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে প্রাইভেটকারের ভেতর গণধর্ষণকারীদের পক্ষে আদালতে দাঁড়াননি সিলেটের কোনো আইনজীবী। সেসময় আইনজীবীদের এমন সিদ্ধান্ত দেশ-বিদেশে প্রশংসিত হয়।

বাংলাদেশ মানবাধিকার ব্যুরো (বিএইচআরবি) সিলেট বিভাগীয় সভাপতি, সিনিয়র সাংবাদিক মুহাম্মদ ফয়জুর রাহমান, জালালাবাদ প্রবাসী কল্যাণ পরিষদের সভাপতি ও বিএইচআরবি সিলেট জেলা সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান চৌধুরী এবং আইনজীবী-সাংবাদিক মুহাম্মদ তাজ উদ্দিনের যৌথ প্রচেষ্টায় এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

640.jpg

আইনজীবী ও সাংবাদিক মুহাম্মদ তাজ উদ্দিনের উপস্থাপনায় মতবিনিময় সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সিলেট সিটি করপোরেশনের স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরান। নিহত রায়হানের পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন সমাজসেবী শওকত আলী।

আরও বক্তব্য রাখেন অ্যাডভোকেট আব্দুর রহমান চৌধুরী, সিনিয়র আইনজীবী ও ব্লাস্টের সিলেট বিভাগীয় সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট ইরফানুজ্জামান চৌধুরী এবং সিলেট ল’ কলেজের অধ্যক্ষ অ্যাডভোকেট সৈয়দ মহসিন আহমদ।