Bangladesh

সাভারে টাকার বিনিময়ে গণধর্ষণের ঘটনার ধামাচাপা চেষ্টাকারী গ্রেপ্তার

সাভারের ভাদাইল এলাকায় কিশোর গ্যাং সদস্যরা দুই কিশোরীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণের ঘটনাটি টাকার বিনিময়ে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টাকারী শাহাদাত হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রবিবার বিকেল ৪ টার দিকে উপজেলার বাইপাইল বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স) একেএম ফজলুল হক।

গ্রেপ্তার শাহাদাত হোসেন (৩০) সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া থানার গোয়াগাতি গ্রামের মৃত হাবিবুর রহমানে ছেলে। সে আশুলিয়ার ভাদাইল এলাকায় থেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন অপকর্মের সাথে লিপ্ত রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বাগেরহাটে ছেলে ও ছেলের বৌ কর্তৃক মাকে মারধর

আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স) একেএম ফজলুল হক বলেন, গত ৩০ আগস্ট আশুলিয়ার ভাদাইল এলাকার দুই কিশোরী তাদের আত্মীয়ের সঙ্গে স্থানীয় পবনারটেক এলাকায় ঘুরতে যায়। এ সময় ওই এলাকার কিশোর গ্যাং সদস্যরা তাদের জোরপূর্বক একটি নির্জন জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে মারধর এবং দলবদ্ধভাবে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে রাখে। এদিকে কিশোর গ্যাংয়ের মধ্যবর্তী কোন্দলের জেরে সেই ভিডিও হাতে পায় শাহাদত ও সুজন। পরে ভিডিও ভাইরাল করার হুমকি দিয়ে ওই দুই ব্যক্তি ধর্ষকদের আত্মীয়স্বজনের কাছে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করে। বাধ্য হয়ে তাদের দাবিকৃত প্রায় দেড় লাখ প্রদান করেন ধর্ষণকারীদের পরিবার। পরবর্তীতে সেই ভিডিও প্রকাশ পেলে পুলিশ দ্রুত অভিযান পরিচালনা করে চারজনকে গ্রেপ্তার করেন। এরপর থেকেই পলাতক ছিল শাহাদাত হোসেন ও সুজন।

640.jpg

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে রবিবার বিকেলে অভিযুক্ত শাহাদাত হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় সহযোগী হিসেবে সোমবার আদালতে পাঠানো হবে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।