জাতীয়

মাদক, সন্ত্রাস, কিশোর গ্যাং কালচার আমাদের সব উন্নয়নকে ম্লান করে দিচ্ছে

সন্ত্রাসী ও নারী নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, দলীয় পরিচয় কোনো অপরাধীর পরিচয় বা রক্ষাকবচ হতে পারে না। মাদক, সন্ত্রাস, কিশোর গ্যাং কালচার আমাদের সব উন্নয়নকে ম্লান করে দিচ্ছে। এ ব্যাপারে পুলিশ ও প্রশাসনকে কঠোরভাবে আইন প্রয়োগ করতে হবে।

শনিবার সকালে ২৩ কোটি টাকা ব্যয়ে চৌমুহনী পৌর পার্ক ও পৌর বাস টার্মিনালের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরো বলেন, বিএনপি আমাদের শক্র নয়। আমরা তাদের নেতিবাচক রাজনীতির বিরোধীতা করি। তারা হাওয়া ভবনের নামে সর্বত্র লুটপাট করায় দেশের মানুষ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

টাঙ্গাইলে মুক্তিযোদ্ধাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা, গ্রেফতার হয়নি কেউ

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার সরকার গরিবের কথা, দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির কথা বললে আপনাদের গাত্রদাহ হয়। বর্তমান সরকার স্থানীয় সরকারের মাধ্যমে শহর ও গ্রামকে কাছাকাছি এনে প্রতিটা গ্রামকে শহরে রূপান্তরিত করছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের সব পৌর মেয়রদের বলবো স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মধ্যে উন্নয়নকে জনগণের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দিতে হবে। পৌর মেয়রদের শাসক নয়, জনগণের সেবক হিসেবে দেখতে চায় শেখ হাসিনার সরকার।

সভায় পৌরসভার মেয়র আক্তার হোসেন ফয়সল সভাপতিত্ব করেন। ভার্চুয়াল এ আলোচনায় আরো যুক্ত ছিলেন বাংলাদেশ মিউনিসিপাল ডেভেলপমেন্ট ফান্ডের (বিএমডিএফ) ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ হাসিনুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন নোয়াখালীর ডিসি খোরশেদ আলম খাঁন ও পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন।

চৌমুহনী পৌরসভার উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে যুক্ত হয়ে দুটি প্রকল্পের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

প্রসঙ্গত, ২৩ কোটি টাকা ব্যয়ে চৌমুহনী পৌর পার্ক ও পৌর বাস টার্মিনাল প্রকল্প বাস্তবায়নে বিশ্বব্যাংক ৯০ শতাংশ অর্থের যোগান দেয় বাকি ১০ শতাংশ অর্থ চৌমুহনী পৌরসভা যোগান দেয়।