Bangladesh

শরীয়তপুরে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে বেলুন বিক্রেতা নিহত, দুই শিশু আহত

এস,এম,স্বাধীন, শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুরের সদর উপজেলার ডোমসারে বেলুন ফুলানোর গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে সায়েদ বেপারী নামে একজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছে দুই শিশু। আহত শিশুদের শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর মধ্যে একজনের অবস্থা অাশঙ্কাজন হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার ডোমসার ইউনিয়নের ডোমসার জগৎচন্দ্র ইনস্টিটিউশন স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সায়েদ ব্যাপারী (৩৫) উপজেলার তুলাসার ইউনিয়নের দড়িওয়ালা গ্রামের মৃত্যু ইউনুস আলীর ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন এলাকায় বেলুন বিক্রি করে আসছেন। আহত দুই শিশু হলো বেলুন বিক্রেতার ছেলে জাহিদ হাসান (০৯) এবং আহত সিয়াম মাদবর (৪) ডোমসার গ্রামের দেলোয়ার মাদবরের ছেলে । স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ডোমসার জগৎচন্দ্র ইনস্টিটিউশন স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে ডোমসার শেখ রাসেল ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা চলছিল। সেই মাঠের দক্ষিণ-পূর্ব কর্নারে বেলুন বিক্রি করছিলেন সায়েদ বেপারী।

একপর্যায়ে তার বেলুন ফুলানোর গ্যাস সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই মাথার খুলি উড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান সায়েদ। গুরুতর আহত অবস্থায় শিশু জাহিদকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । সিয়ামের অবস্থা অাশঙ্কাজন হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার ইব্রাহিম খলিল জানান গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনায় দুজনকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সিয়াম নামের চার বছরের শিশুটি অবস্থা গুরুতর তাই তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে এবং মৃত সাইদ বেপারীর ছেলে জাহিদের চিকিৎসা শরীয়তপুর হাসপাতালে চলমান।

একটি মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে আগামী কাল সকালে পোসমাডাম করা হবে। শরীয়তপুর সদরের পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম উদ্দিন বলেন, ডোমসারে বেলুন ফুলানোর গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। লাশ উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত দুই শিশুকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।