America আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রে আগাম ভোটের নতুন রেকর্ড!

যুক্তরাষ্ট্রে আগাম ভোটের নতুন রেকর্ড।যুক্তরাষ্ট্রে আগাম ভোট দিয়েছেন।এখন পর্যন্ত ৯ কোটির বেশি ভোটার । দেশটিতে মোট ২৫ কোটি ভোটারের এক তৃতীয়াংশেরও বেশি আগাম ভোট দেয়াকে রেকর্ড আর নজিরবিহীন বলছেন বিশ্লেষকরা।

যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাচন নিয়ে এত মাতামাতি অতীতে কখনো দেখা যায়নি। প্রচারণার শুরু থেকেই দুই পার্টির প্রার্থী আর সমর্থকদের আক্রমণ, পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে নির্বাচন। যদিও মাঝে মাঝে তা সীমা ছাড়িয়ে গিয়েছিলে।

এরমধ্যেও প্রতিদিন ভোটাররা লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করছেন। আর এই লম্বা লাইনে ভোট দেয়ার পিছনে দুই দলের সমর্থকদের অবদান রয়েছে। উভয় দলের প্রচারণা শিবির থেকেই বারবার তাগিদ দেয়া হচ্ছে এখনই ভোটটি দিয়ে দেয়ার জন্য, যেটি আগের কোন নির্বাচনে লক্ষ্য করা যায়নি। দুই পক্ষই একে নিজ নিজ পক্ষের গণজোয়ার বা ওয়েভ মনে করছেন।

নিউইয়র্কে আগাম ভোটের জন্য ২৮০টি কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। আর সিটিতে মোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৮৮টি। প্রতিটি কেন্দ্রে লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে ভোটাররা আগাম ভোটে অংশ নিচ্ছেন। প্রায় তিন ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে নিজের ভোট দিয়েছেন নিউইয়র্ক সিটি করপোরেশনের মেয়র ডি ব্লাসিও।

মুসলিমদের অনুভূতিকে বুঝি আমি: ফরাসি প্রেসিডেন্ট

এখানে আরো একটি বিষয় লক্ষণীয় যে, নির্বাচনে ব্ল্যাক ভোটারদের ব্যপক উপস্থিতি। সব মিলিয়ে নির্বাচন নিয়ে একটি সাজ সাজ রব ভাব বিরাজ করছে। এতে কঠিন লড়ইয়ের আভাস পুরো যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে কয়েক মাস নির্বাচনী প্রচারণা শেষে আজ মঙ্গলবার (০৩ নভেম্বর) ভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ভোটের দিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জো বাইডেন দু’জনই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নির্বাচন নিয়ে পোস্ট করেছেন। নিজের নাচের ভিডিও ছেড়ে ট্রাম্প মাত্র তিনটি শব্দ লিখেছেন ‘ভোট! ভোট! ভোট!

সে ভিডিওতে স্টেজে গানের তালে তালে ট্রাম্পকে সমর্থকদের উদ্দীপ্ত করতে বিভিন্ন ঢঙে নাচতে দেখা গেছে। এ সময় ট্রাম্পের নাচের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সমর্থকরা দারুণ উৎফুল্ল। ট্রাম্পের এই নাচের ভিডিও নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনা হচ্ছে।

আমেরিকায় ভোট গ্রহণের চূড়ান্ত পর্যায় শুরু হয়েছে। প্রেসিডেন্ট পদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন রিপাবলিকান দলের পক্ষে বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আর তার ডেমোক্র্যাট দলের প্রতিপক্ষ হলেন জো বাইডেন, যিনি বারাক ওবামার শাসনামলে ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেছেন।