জাতীয়

ক্ষমতার অপব্যবহার করলে মানুষের সঙ্গে বেঈমানী করা হবে

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, জনপ্রতিনিধিরা যদি সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন না করে তাহলে নিজেদের প্রতি অবিচার করা তো হবেই, মানুষের সঙ্গেও বেঈমানী করা হবে। তাই নিজে ক্ষমতাবান বলে কোনক্রমেই ক্ষমতার অপব্যবহার করা যাবে না। ক্ষমতার অপব্যবহার করলে মানুষের সঙ্গে বেঈমানী করা হবে ।

বৃহস্পতিবার নয়টি জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত ১০ জন সদস্যদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বরগুনা, সুনামগঞ্জ, চাঁদপুর, খুলনা, নারায়ণগঞ্জ, কুষ্টিয়া, মৌলভীবাজার ও সিলেট জেলা পরিষদের একজন করে এবং ফরিদপুর জেলা পরিষদের দুইজন সদস্যকে শপথ বাক্য পাঠ করান।

সংসদ ভবন এলাকায় মিছিল-সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা

মো. তাজুল ইসলাম বলেন, নিজে ভালো থাকতে চাইলে আমাদের চারপাশে যারা আছে, তাদের সবাইকে ভালো রাখতে হবে। অন্যের ক্ষতি করে নিজের স্বার্থ সিদ্ধি করলে পরবর্তীতে এর প্রভাব নিজের উপরেই আসবে। এ সময় জনপ্রতিনিধিদের অন্যের সম্পদ অন্যায়ভাবে দখল এবং সমাজে অন্যায়-অবিচার সৃষ্টি করা থেকে বিরত থাকারও আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছেন। আর এই দেশটিকে উন্নত সমৃদ্ধ করার লক্ষ্যে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তাসহ সব শ্রেণি-পেশার মানুষকে একযোগে কাজ করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, মানুষ আমাদের নির্বাচিত করেছেন। তাই জনপ্রতিনিধিদেরকেই জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটাতে হবে।

উল্লেখ্য, বরগুনা, সুনামগঞ্জ, চাঁদপুর, খুলনা, নারায়ণগঞ্জ, কুষ্টিয়া, মৌলভীবাজার সিলেট জেলা পরিষদের সদস্যের মৃত্যুজনিত কারণে সদস্য পদ শূন্য হয়। এছাড়া ফরিদপুর জেলা পরিষদের দুইজন সদস্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বরাবর পদত্যাগ করলে দুটি পদ শূন্য হয়। এসব শূন্য পদে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।