খবর

ভেদরগঞ্জে সৎমায়ের দেওয়া নাস্তা খেয়ে দুই বোনের রহস্যজনক মৃত্যু

 

এস,এম,স্বাধীন-শরীয়তপুর প্রতিনিধিঃ
শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলায় সৎমায়ের দেওয়া নাস্তা খাওয়ার পরে সোয়া মনি (৯) ও তোয়া মনি (৭) নামের দুই বোনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় তাদের বাবা ও সৎমাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশ। শুক্রবার (৬ নভেম্বর) সকালে উপজেলার রামভদ্রপুর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হচ্ছে- ৪নং ওয়ার্ডের পাঁচালিয়া গ্রামের কৃষক মো. শুকুর মৃধার মেয়ে। সোয়া ৩ নং রামভদ্রপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী। আর তোয়া একই বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী।

স্থানীয় ভাবে জানা যায়, সকাল ১০টার দিকে সৎমায়ের দেওয়া নাস্তা খাওয়ার পর দুই শিশু অসুস্থ হয়ে পড়ে। অসুস্থ অবস্থায় বাবা শুকুর মৃধা ও স্থানীয় লোকজন তাদের প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন।

পরে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সোয়া ও তোয়ার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতদের বাবা মো. শুকুর মৃধা (৪২) ও সৎমা সূর্যমনিকে (২৫) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশ।

নিহতের মামি লাকি বেগম বলেন, আমার দুই ভাগ্নিকে বিষ পান করিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় এনে বিচার করা হোক।

ভেদরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম রশিদুল বারী বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য তাদের মরদেহ শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে মর্গে নেয়া হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে বলা যাবে- শিশুরা কীভাবে মারা গেল।