জাতীয়

সংসদ লেকে ভাসানো দুই গয়না নৌকার ব্যয় ৪০ লাখ টাকা

সংসদ লেকে ভাসানো দুই নৌকা তৈরিতে ব্যয় ৪০ লাখ টাকা

ঢাকা: সংসদ লেকে ভাসানো দুই গয়না নৌকার ব্যয় ৪০ লাখ টাকা৷ মুজিববর্ষ উপলক্ষে জাতীয় সংসদ ভবনের লেকে ভাসানো দৃষ্টিনন্দন দুই গয়না নৌকা তৈরিতে ৪০ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন এই নৌকা দুটি তৈরি করেছে।

বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) জাতীয় সংসদ ভবন লেকে মুজিববর্ষের লোগো খচিত নৌকা দুটি ভাসানো হয়।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছে সরকার: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, নৌকা দুটি বিশেষ বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নকশা অনুমোদনের পর নৌকার মূল কাঠামো গড়া হয়েছে গয়না নৌকার আদলে। লম্বায় ২৭ ফুট।

পাঁচ ফুট চওড়া। নৌকা দুটি তৈরিতে খরচ হয়েছে ৪০ লাখ টাকা।

করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে আছে সরকার: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

পুরো কাজের তত্ত্বাবধানে ছিলেন শিল্পী আনিসুজ্জামান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের এই অধ্যাপক নৌকার প্রাথমিক ডিজাইন করেন।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৭০ সালের নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের মাধ্যমে বিজয় নিশ্চিত হয়। বর্তমানে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগ বিজয়ী হয়েছে। নৌকা প্রতীকের মাধ্যমে দেশের আবহমান ঐতিহ্যকে তুলে ধরা হয়েছে। এর মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা সংস্কৃতি ও সভ্যতাকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের উদ্যোগে দৃষ্টিনন্দন এ নৌকা দুটি তৈরিতে প্রায় ৪০ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। নৌকা দুটি ২৭ ফুট লম্বা এবং পাঁচ ফুট চওড়া।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের তত্ত্বাবধানে নৌকা দুটি তৈরি করা হয়। এর ডিজাইনও তিনি করেছেন। পরে প্রখ্যাত শিল্পী হাশেম খান চূড়ান্ত ডিজাইনটি করেছেন। তৈরির আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এটি দেখে সম্মতি দিয়েছেন। 

আরও জানা গেছে, মুজিববর্ষ চলাকালীন অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের তত্ত্বাবধানে নৌকা দুটি পরিচালিত হবে। পরবর্তীতে সংসদ সচিবালয় ও পর্যটন করপোরেশন আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবে।

সংসদ ভবনের লেকে ভাসমান নৌকায় সাধারণ মানুষের ওঠার সুযোগ থাকছে না। ভিআইপি ও বিদেশি পর্যটকরা এ নৌকায় সংসদের লেক ভ্রমণ করতে পারবেন। ইতিহাস ও ঐতিহ্যের সঙ্গে কৃষ্টি-কালচার ও ইতিহাস-ঐতিহ্য তুলে ধরতে এই নৌকার ব্যবস্থা করা হয়েছে।