Bangladesh Politics

সরকার লাইফ সাপোর্টে আছে: গয়েশ্বর

সরকার লাইফ সাপোর্টে আছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, জনগণ এ লাইফ সাপোর্ট খোলার দায়িত্ব হাতে তুলে নিলেই সরকারের মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে।

শুক্রবার (৬ নভেম্বর) নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত দোয়া মাহফিলে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন গয়েশ্বর।

তিনি আরও বলেন, জনগণের সমর্থনবিহীন সরকার লাইফ সাপোর্টে ছাড়া আর কোনো সাপোর্টে থাকতে পারে না।

সরকারের কোনো অর্জন বিএনপির চোখে পড়ে না: কাদের

জাতীয় ঐক্য সৃষ্টির তাগিদ দিয়ে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, বর্তমান দুরাবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য ঐক্যের বিকল্প নেই।

তিনি বলেন, দলে নানা মতের, নানা পথের মানুষ থাকতে পারে কিন্তু নিজেদের মধ্যে একটি ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস থাকতে হবে।

এ সময় দলের স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, এখানে কোনো বিরোধী দলকে থাকতে দেয়া হচ্ছে না। করোনা যেমন সবার ক্ষতি করছে, সরকারও করোনার মতোই দেশের ক্ষতি করছে।

জাতীয় সংসদে বর্তমান বিরোধী দলের সমালোচনা করে নজরুল বলেন, এমন একটি গৃহপালিত বিরোধী দল রয়েছে, যারা সংসদে সমালোচনা করার আগে ইনিয়ে-বিনিয়ে সরকারের অনুমতি নেয়। ‘সরকার যদি কিছু মনে না করে, তাহলে একটি কথা বলতে চাই’ এমন বাক্য দিয়ে তারা কথা বলা শুরু করেন বলে মন্তব্য করেন বিএনপির এ স্থায়ী কমিটির সদস্য।

সরকার লাইফ সাপোর্টে আছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেন, জনগণ এ লাইফ সাপোর্ট খোলার দায়িত্ব হাতে তুলে নিলেই সরকারের মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে।

শুক্রবার (৬ নভেম্বর) নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত দোয়া মাহফিলে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন গয়েশ্বর।

তিনি আরও বলেন, জনগণের সমর্থনবিহীন সরকার লাইফ সাপোর্টে ছাড়া আর কোনো সাপোর্টে থাকতে পারে না।

জাতীয় ঐক্য সৃষ্টির তাগিদ দিয়ে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, বর্তমান দুরাবস্থা থেকে পরিত্রাণের জন্য ঐক্যের বিকল্প নেই।

তিনি বলেন, দলে নানা মতের, নানা পথের মানুষ থাকতে পারে কিন্তু নিজেদের মধ্যে একটি ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস থাকতে হবে।

এ সময় দলের স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, এখানে কোনো বিরোধী দলকে থাকতে দেয়া হচ্ছে না। করোনা যেমন সবার ক্ষতি করছে, সরকারও করোনার মতোই দেশের ক্ষতি করছে।

জাতীয় সংসদে বর্তমান বিরোধী দলের সমালোচনা করে নজরুল বলেন, এমন একটি গৃহপালিত বিরোধী দল রয়েছে, যারা সংসদে সমালোচনা করার আগে ইনিয়ে-বিনিয়ে সরকারের অনুমতি নেয়। ‘সরকার যদি কিছু মনে না করে, তাহলে একটি কথা বলতে চাই’ এমন বাক্য দিয়ে তারা কথা বলা শুরু করেন বলে মন্তব্য করেন বিএনপির এ স্থায়ী কমিটির সদস্য।