Politics

গণতন্ত্র ধ্বংস করে জোর করে ক্ষমতায় আছে সরকার: ফখরুল

বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জনগণের অধিকার কেড়ে নিয়ে গণতন্ত্র ধ্বংস করে দিয়ে জোর করে ক্ষমতায় আছে আওয়ামী লীগ। ৭ নভেম্বর উপলক্ষে দলের প্রতিষ্ঠাতা ও মরহুম রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানোর পর ফখরুল এ গণতন্ত্র ধ্বংস করে জোর করে ক্ষমতায় আছে সরকার মন্তব্য করেন।

শনিবার (৭ নভেম্বর) সকাল থেকেই ছোট ছোট মিছিল নিয়ে শের-ই-বাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের সমাধি প্রাঙ্গণে সমবেত হন বিএনপি’র নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। ১১ টার দিকে স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ সময় তারা দোয়া ও মোনাজাত করেন।

আরও পড়ুন: দৈনিক আস্থার সাংবাদিক শেখ সাগরকে বেধড়ক মারধর

শ্রদ্ধা জানানো শেষে বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে বিএনপি বদ্ধপরিকর। পরে দলের ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

আরও পড়ুন: আঠারশ’ বিচারক সাড়ে ১৬ কোটি মানুষের বিচারে

কোভিড পরিস্থিতি বিবেচনায় এই শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠান দুভাগে বিভক্ত করে বিএনপি। প্রথম ভাগে বেলা ১১টার দিকে দলের স্থায়ী কমিটির নেতারা ও দুপুর ১২টা থেকে মহানগর কমিটির নেতাকর্মী ও সমর্থকদের শ্রদ্ধা জানানোর কথা। তবে মহানগরের নেতা-কর্মী সমর্থকরা বেলা ১১টার আগেই সমাধি-প্রাঙ্গণে চলে আসেন।

কর্মীদের ভিড় দেখে সমাধি প্রাঙ্গণে না এসে কিছুটা দূরে গাড়িতে বসে থাকেন দলের স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। পরে দলীয় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নেতাকর্মীদের সরিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদনের জায়গা ফাঁকা করলে মওদুদ আহমদসহ অন্য নেতারা সমাধির পাশে আসেন।

সাংগঠনিক কার্যক্রম তো দূরের কথা, বর্তমান ও আগের আহ্বায়ক কমিটির প্যাঁচ থেকেই বেরোতে পারছে না সাতক্ষীরা বিএনপি। বিশেষ করে বর্তমান আহ্বায়ক কমিটি হওয়ার পর থেকে এ প্যাঁচ আরো প্রকট আকার ধারণ করেছে। নতুন কমিটির নেতাদের মেনে নিতে পারছেন না আগের কমিটির নেতাকর্মীরা। আগের কমিটি এখনো আলাদা কর্মসূচি পালন করছে। তাদের সঙ্গে আছেন জেলা আহ্বায়ক কমিটির সাবেক সদস্য সচিব তারিকুল হাসান।

জেলা বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলের বিষয়ে জেলা যুবদলের সভাপতি আবু জাহিদ ডাবলু ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, বর্তমান জেলা আহ্বায়ক কমিটিকে ব্যর্থ প্রমাণ করতে দলের মধ্যে থাকা একটি পক্ষ দলের বিভিন্ন কর্মসূচিতে পাল্টা কর্মসূচি পালন করছে। কেন্দ্র ঘোষিত জেলা আহ্বায়ক কমিটির বাইরে সাংগঠনিকভাবে অন্য কারো কোনো কর্মসূচি করার সুযোগ নেই।