Cricket খেলাধুলা

দিলশানের স্ত্রীকে বিয়ে করেন থারাঙ্গা

দিলশানের স্ত্রীকে বিয়ে করেন থারাঙ্গা । শ্রীলঙ্কার উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান উপুল থারাঙ্গা বিয়ে করেছিলেন তিলকরত্নে দিলশানের স্ত্রীকে। তিলকরত্নে দিলশানকে শ্রীলঙ্কার অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হিসাবে বিবেচনা করা হয়।

তিলকরত্নে দিলশান প্রথা অনুসারে নীলঙ্কা ভিথানেজকে বিয়ে করেছিলেন এবং তাদের দুজনেরই একটি পুত্র সন্তান রয়েছে, কিন্তু কিছু বছর পর থেকে তাদের সম্পর্কের অবনতি হতে শুরু করে ও তারা বিবাহ বিচ্ছেদ করে।

আস্থা রাখবে সতীর্থরা আমার ওপর : সাকিব

কিন্তু শোনা গিয়েছে উপুল থারাঙ্গার সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত স’ম্পর্কের কারণেই দিলশান ও তার স্ত্রী’ মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি হয়েছিল ও তারা ডিভোর্স নিয়েছিলেন।

ডিভোর্স দেওয়ার পরে একদিকে উপুল থারাঙ্গা নীলাঙ্কা ভিথানেজকে বিয়ে করেছিলেন। তিলকরত্নে দিলশান তাঁর শৈশবের বন্ধু মঞ্জুলাকে বিয়ে করেছিলেন।

তিলকরত্নে দিলশান শ্রীলঙ্কার দলের হয়ে টেস্ট ম্যাচে ৫৪৯২ রান এবং ওয়ানডেতে ১০২০৯ রান করেছেন। বিপরীতে, উপুল থারাঙ্গা আন্তর্জাতিক টেস্ট ম্যাচে ১৭৫৪ এবং ওয়ানডেতে ৬৯৩৬ রান করেছেন।

দিলশানের বিপক্ষে নিজের ও তার সন্তানের ভরন-পোষণ এবং বীমার দেয়ার জন্য মামলা করেছিলেন তার প্রথম স্ত্রী নিলাঙ্কা উইথনাগে। সেটি সময়মত দিতে না পারায়, দিলশানকে আদালতে হাজিরের নিদের্শ দেয়া হয়। দিলশানকে পরবর্তী তারিখে আদালতে হাজিরের নিদের্শ দিয়েছেন প্রধান ম্যাজিস্ট্রেট। এছাড়া আগামী ২৪ মে পর্যন্ত এই মামলাটি স্থগিত রেখেছেন ম্যাজিস্ট্রেট।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ১৭ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন দিলশান। এসময় ৮৭ টেস্টে ৫৪৯২, ৩৩০ ওয়ানডেতে ১০২৯০ ও ৮০টি-২০ ম্যাচে ১৮৮৯ রান করেন তিনি। বল হাতে টেস্টে ৩৯, ওয়ানডেতে ১০৬ ও টি-২০তে ৯ উইকেট নিয়েছেন ৪০ বছর বয়সী দিলশান।

তিলকরত্নে দিলশান শ্রীলঙ্কার দলের হয়ে টেস্ট ম্যাচে ৫৪৯২ রান এবং ওয়ানডেতে ১০২০৯ রান করেছেন। বিপরীতে, উপুল থারাঙ্গা আন্তর্জাতিক টেস্ট ম্যাচে ১৭৫৪ এবং ওয়ানডেতে ৬৯৩৬ রান করেছেন।

মুরালিধরন-রানাতুঙ্গাদের মতো কিংবদন্তি তিনি নন। সাঙ্গাকারা-জয়াবর্ধনেদের মতো আলাদা একটি যুগের প্রতিনিধিও তাঁকে বলা যাবে না। তবু শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে তিলকরত্নে দিলশান অনন্য এক চরিত্র, যেন ‘ত্রিকালদর্শী’। প্রায় চল্লিশে পা দেওয়া সেই দিলশানই কাল বিদায় বলে দিলেন ওয়ানডেকে। সতীর্থদের ‘গার্ড অব অনারের’ মধ্য দিয়ে মাঠে নেমে শেষ ইনিংসে করেছেন ৪২ রান। ঠিক ‘দিলশানীয়’ আক্রমণাত্মক ইনিংস নয়, বল খেলেছেন ৬৫টি। ছিল না নামের সঙ্গে জুড়ে যাওয়া ‘দিলস্কুপ’ও। তবু ইনিংসটি এক অর্থে হয়ে থাকল তাঁর লড়াইয়ের প্রতিচ্ছবি। ২৩ রানে ২ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর সেঞ্চুরিয়ান চান্ডিমালের সঙ্গে মিলে ইনিংস গড়েছেন। আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরার পথে ব্যাট উঁচিয়ে দর্শকদের অভিবাদন জানিয়েছেন, পুরো গ্যালারিও উঠে দাঁড়িয়ে করতালিতে ধন্যবাদ জানিয়েছে তাঁকে। দিলশান আউট হওয়ার পর শ্রীলঙ্কাকে টেনে নিয়ে গেছেন চান্ডিমাল, করেছেন ১০২ রান। তবে শেষ দিকের ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ হওয়ায় ২২৬ রানেই অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। ক্রিকইনফো।