Bangladesh

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ শ্বশুরের বিরুদ্ধে

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ময়মনসিংহ এর তারাকান্ধায়।

মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) সকালে তারাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল খায়ের জানান, উপজেলার তারাকান্দা ইউনিয়নের পিঠাসূতা গ্রামের ওই ব্যক্তি কয়েক বছর আগে নিজের বাকপ্রতিবন্ধী ছেলেকে বিয়ে করান একই গ্রামের এক তরুণীর (২০) সঙ্গে। তাদের সংসারে একটি সন্তান রয়েছে।
গত ৫ নভেম্বর ওই ব্যক্তি নিজের ছেলের স্ত্রীকে ধর্ষণ করে। পুত্রবধূকে ধর্ষনের বিষয়টি জানাজানি হলে সোমবার সন্ধ্যায় তারাকান্দা থানায় গিয়ে নির্যাতনের বর্ণনা দিয়ে শ্বশুরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন ওই নারী। রাতেই গৃহবধূর অভিযোগটি মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করা হয় বলে জানান তিনি।
পুলিশের এ কর্মকর্তা আবুল খায়ের জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ওই নারীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।
অর্থপাচার মামলা: জিকে শামীমসহ ৮ জনের বিচার শুরু

জিকে শামীমসহ ৮ জনের বিচার শুরু। অর্থপাচার মামলায় এসএম গোলাম কিবরিয়া শামীমসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। এর মধ্য দিয়ে এ মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার কাজ শুরু হলো। আজ মঙ্গলবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত -১০ এর বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম আসামিদের অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ১৯ নভেম্বর দিন ধার্য করেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- দেলোয়ার হোসেন, মুরাদ হোসেন, মো. জাহিদুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম,  জামাল হোসেন, সামসাদ হোসেন ও আমিনুল ইসলাম।

এর আগে আসামি জিকে শামীমসহ অন্য আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। এসময় আসামি পক্ষের আইনজীবীরা তাদের মামলা থেকে অব্যাহতির জন্য আবেদন করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষ অভিযোগ গঠনের পক্ষে শুনানি করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামিদের অব্যাহতির আবেদন খারিজ করে অভিযোগ গঠন করেন।

এদিকে গত ৫ অক্টোবর ঢাকা মহানগর আদালতের জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালত এ অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে মামলাটি বিচারের জন্য ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-১০-এ বদলি করেন। গত ৪ আগস্ট সিআইডির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকোনমিক ক্রাইম স্কোয়াড আবু সাঈদ ৮ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এ মামলায় মোট ২৬ জনকে সাক্ষী করা হয়।

২০১৯ সালের ২১ সেপ্টেম্বর র‍্যাব-১ এর নায়েব সুবেদার মিজানুর রহমান বাদী হয়ে গুলশান থানায় আসামিদের বিরুদ্ধে অর্থ পাচার প্রতিরোধ আইনে মামলাটি করেন। এর আগে গত বছরের ২০ সেপ্টেম্বর রাজধানীর নিকেতনে শামীমের বাড়ি ও অফিসে র‍্যাব অভিযান চালিয়ে আটটি আগ্নেয়াস্ত্র, বিপুল পরিমাণ গুলি, ১৬৫ কোটি টাকার এফডিআর এবং নগদ প্রায় এক কোটি ৮১ লাখ টাকা, বিপুল পরিমাণ বিদেশি মুদ্রা এবং মদ জব্দ করে।

https://doinikastha.com/2020/11/10/%e0%a6%8f%e0%a6%8f%e0%a6%b8%e0%a6%aa%e0%a6%bf-%e0%a6%86%e0%a6%a8%e0%a6%bf%e0%a6%b8%e0%a6%95%e0%a7%87-%e0%a6%b9%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be-%e0%a6%aa%e0%a6%b0%e0%a6%bf%e0%a6%95/