Bangladesh

কাঠালিয়ার ছৈলারচর’কে পর্যটন সুবিধার দাবিতে মানববন্ধন

কাঠালিয়ার ছৈলারচর’কে পর্যটন সুবিধার দাবিতে মানববন্ধন মোঃ আমির হোসেন,বিশেষ প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার ছৈলারচরকে পূর্ণাঙ্গ পর্যটন সুবিধার দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। বুধবার (১১ নভেম্বর) সকালে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “সামাজিক আন্দোলন কাঠালিয়া” ছৈলারচরে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে। মানববন্ধনে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ অংশ নেন। এসময় বক্তব্য রাখেন সামাজিক আন্দোলন’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অমিত হাসান তুহিন সিকদার, উপদেষ্টা মোঃ নাসিম মিরবহর, মোঃ কামাল হোসেন ও মো. হেতায়েত উল্লাহ জিহাদ প্রমূখ। মানববন্ধন শেষে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক (ভারপ্রাপ্ত) মো. আরিফুল ইসলামের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। মানববন্ধনে বক্তারা ছৈলারচরকে পূর্ণাঙ্গ পর্যটন সুবিধা দেয়ার দাবি জানান। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে ঝালকাঠির জেলা প্রশাসন কাঠালিয়া উপজেলার বিষখালী নদীর তীরে জেগে ওঠা ৩০ একর বিস্তৃর্ণ এলাকা জুড়ে নৈসর্গিক এ ছৈলারচরকে পর্যটন কেন্দ্র ও পিকনিক স্পট ঘোষণা করা হলেও দীর্ঘ পাঁচ বছরেও এখানে পর্যটক সুবিধা প্রদানের লক্ষ্যে কোন উন্নয়নমূলক কাজ বা প্রকল্প গ্রহণ করা হয়নি।   ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত ১৭৩৩ জন, ১৯ জনের মৃত্যু মহামারি করোনা ভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ১৭৩৩ জন আরও ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৬ হাজার ১২৭ জন। এ ছাড়া ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে আরও ১৭৩৩ জনের দেহে। এ নিয়ে মোট করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হলো ৪ লাখ ২৫ হাজার ৩৫৩ জন করোনা রোগী। বুধবার (১১ নভেম্বর) বিকেলে করোনাভাইরাস নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। সংস্থার অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়, এ দিন সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৭১৫ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৪৩ হাজার ১৩১ জন।

ধরিত্রী সুরক্ষায় বহুমুখী প্রচেষ্টার প্রতি প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ

এর আগে মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) দেশে আরও আরও ১ হাজার ৬৯৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে মারা যান আরও ১৬ জন। এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বুধবার বিকেলে পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ কোটি ১৮ লাখ ১০ হাজার ১১২ জন। মৃত্যু হয়েছে ১২ লাখ ৭৯ হাজার ৫৩১ জনের। আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন তিন কোটি ৬৩ লাখ ৯৪ হাজার ৮৭৪ জন। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১ কোটি ৫৫ লাখ ৯ হাজার ১৮৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪৫ হাজার ৭৯৯ জনের। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন ৮৬ লাখ ৩৬ হাজার ১১ জন এবং মারা গেছেন এক লাখ ২৭ হাজার ৬১৫ জন। তৃতীয় অবস্থানে থাকা লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় ৫৭ লাখ ১ হাজার ২৮৩ জনের বেশি মানুষ সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৬২ হাজার ৮৪২ জনের। চতুর্থ অবস্থানে থাকা ফ্রান্সে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১৮ লাখ ২৯ হাজার ৬৫৯ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৪২ হাজার ২০৭ জন। পঞ্চম স্থানে উঠে আসা ইউরোপের দেশ রাশিয়ায় করোনায় সংক্রমণের সংখ্যা ১৮ লাখ ১৭ হাজার ১০৯ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩১ হাজার ১৬১ জনের। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৫টি দেশে ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯। বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয় ৮ মার্চ। প্রথম মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।