Bangladesh

মৎস্যজীবি লীগের সভাপতির অপকর্মের প্রতিবাদ করায় ষড়যন্ত্র ও হয়রানি

মোঃ বেল্লাল হোসেন নাঈম, নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর চাটখিলে মৎস্যজীবি লীগের সভাপতি আব্বাস উদ্দিনের বিভিন্ন অন্যায়, অপকর্ম, অসামাজিক ও সংগঠন বিরোধী কার্যকলাপের প্রতিবাদ করায় সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম স্বপনরে বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানোর চেষ্টা ও হুমকি ধামকি ভয়ভীতি দেখিয়ে নানাভাবে হয়রানি করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, উপজেলা মৎস্য লীগের সভাপতি আব্বাস উদ্দিন বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িয়ে পড়ে সংগঠনের সুনাম ক্ষুন্ন করছেন। ইতোমধ্যে তার অপকর্মের ফিরিস্তি তুলে ধরে সংগঠনের সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখতে সদস্যরা নোয়াখালী জেলা মৎস্যজীবি লীগের কমিটির কাছে অভিযোগ পত্র দিয়েছে।

নিজের অপরাধ আড়াল করে বহাল তবিয়তে থাকতে সুচতুর আব্বাস উদ্দিন মৎস্যজীবী লীগের সহসভাপতি আমিনুল ইসলাম স্বপনের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে এবং তাকেসহ সংগঠনের অন্যান্যদের হয়রানি করতে থাকে।

স্থানীয় বিভিন্ন সূত্র জানায়, বলৎকার, ধর্ষণ, গরু চুরিসহ এলাকায় হেন কোনো অপরাধ নেই, যা সে করেনি। তার মদদে জুয়ার আসর চলে।

সে মাদকের সাথে জড়িত। পাঁচগাও ইউনিয়ন ৯নং ওয়ার্ড লামচরে সাবেক মেম্বার জালাল, জামাল ও বর্তমানে সিরাজ মেম্বার কয়েকবার সালিশী বৈঠকে আব্বাস উদ্দিনকে জরিমানা ও শারীরিক শাস্তি প্রদান করে এলাকা থেকে বিতাড়িত করে দেয় বলে জানান স্থানীয় লোকজন।

উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন পিন্টু বলেন, আব্বাস উদ্দিনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ নারী নির্যাতন শিশু বলৎকার গরু চুরি সহ আরো অনেক অসামাজিক কার্যকলাপ যাহা দলের আদর্শ ও নিয়ম শৃঙ্খলা ভঙ্গের মতো গুরুতর অপরাধ।

উল্লেখ্য,গত ২ নভেম্বর দৈনিক সমকাল পত্রিকায় উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন পিন্টু ও পৌর কমিটির সভাপতি নুর আলম নয়ন যোগসাজোগে বিএনপি’র ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম স্বপন কে অর্থের বিনিময়ে উপজেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের সহ-সভাপতি পদ দেওয়া হয় বলে একটি মিথ্যা সংবাদ ভুল তথ্য দিয়ে আব্বাস উদ্দিন প্রকাশ করায়।

আমিনুল ইসলাম স্বপন, নুর আলম নয়ন, নাসির উদ্দীন পিন্টুসহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিথ্যা ও বানোয়াট এ সংবাদের প্রতিবাদ জানান। নোয়াখালী জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের কমিটির যুগ্ন আহবায়ক মামুনুর রশিদ এর কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আব্বাস উদ্দিনের এলাকায় খোঁজখবর নিয়ে যতটুকু জানতে পারলাম সে একজন খারাপ মানুষ, তার ব্যাপারে শীঘ্রই সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

টাকার বিনিময়ে পদ দেওয়া হয়েছে এ কথার সত্যতা পাওয়া যায়নি। স্বপন জানান, আব্বাস ষড়যন্ত্র করছে। আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবীত হয়েই সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি। এসময় তিনি আব্বাস উদ্দিন অপরাধীর বিচার ও অপসারণ দাবি করেন।