Bangladesh Rajshahi

আ.লীগ প্রার্থী বলছেন শান্তিপূর্ণ, বিএনপির অভিযোগ এজেন্টদের বের করে দেওয়া হচ্ছে

আ.লীগ প্রার্থী বলছেন শান্তিপূর্ণ, বিএনপির অভিযোগ এজেন্টদের বের করে দেওয়া হচ্ছে।সিরাজগঞ্জ-১ আসনে উপনির্বাচনে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটাররা তাঁদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিচ্ছেন বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তানভীর শাকিল জয়।

অন্যদিকে, আসনটিতে প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী সেলিম রেজার অভিযোগ, ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দেওয়ার অভিযোগে এক ভোটারকে মারধর করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র থেকে তাঁদের দলীয় এজেন্টদের বের করে দেওয়া হচ্ছে। 

সিরাজগঞ্জ-১ (কাজিপুর ও সদরের একাংশ এবং একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত) আসনে উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ  চলছে। এই আসনে আওয়ামী লীগ থেকে নৌকাপ্রতীক নিয়ে নাসিমপুত্র তানভীর শাকিল জয় এবং বিএনপি থেকে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে কাজিপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি সেলিম রেজা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সকাল পৌনে ৯টার দিকে বেড়িপোটল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এসে ভোট দেন তানভীর শাকিল জয়। এ সময় তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, ‘ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট হচ্ছে বলে নির্বাচন আরো উৎসবমুখর পরিবশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ আসনে প্রয়াত সাংসদ ক্যাপ্টন মুনসুর আলী ও মোহাম্মদ নাসিম যে অভুতপূর্ব উন্নয়ন করেছেন তাঁদের স্মৃতি অব্যাহত রাখতে জনগণ বিপুল ভোটে আবারো নৌকাকে জয়ী করবে। আর বিজয়ী হলে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখা হবে। 

বিএনপির সমালাচনা করে জয় বলেন, ‘আওয়ামী লীগ মানুষের জন্য কাজ করতে করতে ও ভোটারদের কাছে প্রচারণা চালাতে চালাতে ক্লান্ত। আর বিএনপির নেতাকর্মীরা মিথ্যা অভিযাগ ও নানা ষড়যন্ত্র করতে করতে ক্লান্ত। কিন্তু নির্বাচনে ভোটাররা যার যার পছন্দের প্রার্থীকে অবাধে ভোট দিতে পারবে। কেউ বাধা দেবে না।’

অপরদিকে, বিএনপির প্রার্থী সেলিম রেজা সকাল ১১টার দিকে চালিতাডাঙ্গা বিএন উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন।  এ সময় তাঁর সঙ্গে থাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু অভিযোগ করেন, চরগিরিশ ৭ নম্বর ভোটকেন্দ্রে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দেওয়ার অভিযোগে এক ভোটারকে মারধর করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র থেকে তাঁদের দলীয় এজেন্টদের বের করে দেওয়া হচ্ছে।

সিরাজগঞ্জ-১ আসনে আজ বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) সকাল ৮টায় শুরু হয় ভোটগ্রহণ। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। গত ১৩ জুন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়া সদস্য মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হয়। আসনটিতে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে। এখানে মোট ভোটার রয়েছেন তিন লাখ ৪৫ হাজার ৬০৩ জন। কেন্দ্র সংখ্যা ১৬৮টি। 

রূপপুর বিদ্যুৎ প্রকল্প:রাশিয়া থেকে এলো প্রথম পরমাণু চুল্লিপাত্র