ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মসজিদের জমি দখলের অভিযোগ

গাজীপুরে শ্রীপুরে ভূমি কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিনের ভূমি কর্মকর্তা বিরুদ্ধে মসজিদের জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গছে। গিয়াস উদ্দিন গাজীপুর ভূমি অফিসে ভূমি উপ-সহকারী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন।

সেলিম ফকির জানান, মৃত মমতাজ উদ্দিনের মেয়ে হালিমা খাতুন ও ছেলে নূর মোহাম্মদ পৈতৃক সূত্রে মালিক হয়ে তিন বছর পূর্বে মসজিদ নির্মাণের জন্য ১৫ শতাংশ জমি ওয়াক্‌ফ করে দেন। ওই জমিতে স্থানীয়দের সহযোগিতায় একটি পাকা মসজিদ, ওযুখানা, দুটি টয়লেট ও গোসলখানা নির্মাণ করা হয়।

সম্প্রতি জমির মূল্য বেড়ে যাওয়ায় স্থানীয় গিয়াস উদ্দিন ওযুখানা, দুটি টয়লেট ও গোসলখানায় কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে দখল করে নেয়। কাঁটাতারের বেড়া দেয়ায় নামাজ পড়তে আসা মুসল্লিদের ওযু-গোসলসহ প্রাকৃতিক কাজ সারতে পারছেন না।

এ সময় জমিদাতা নূর মোহাম্মদের ভাগিনা সেলিম ফকির জমি দখলে বাধা দিলে গিয়াস উদ্দিন ও তার সহযোগীরা তাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে খুন-জখমের হুমকি দেয়। অভিযুক্ত গিয়াস উদ্দিন জানান, আমি মসজিদের জায়গা দখল করিনি। আমার মালিকানাধীন দুই শতাংশ জমি ৮ বছর ধরে বেদখল ছিল। বেদখলীয় জমি সিমেন্টের পিলার পুঁতে কাঁটা তারের বেড়া দিয়ে দখলে নিয়েছি।

শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মোহাম্মদ আকতার হোসেন জানান, মসজিদের জমি দখলের ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনা তদন্তের জন্য একজন এসআইকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। দখলের প্রমাণ পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন