DoinikAstha Epaper Version
ঢাকাশুক্রবার ১৪ই জুন ২০২৪
ঢাকাশুক্রবার ১৪ই জুন ২০২৪

আজকের সর্বশেষ সবখবর

আজারবাইজানকে সামরিক সহায়তা দিতে প্রস্তুত তুরস্ক

News Editor
অক্টোবর ২২, ২০২০ ১০:২০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আজারবাইজান আহ্বান জানালে দেশটিকে সহায়তায় তুরস্ক সেনা এবং সামরিক সরঞ্জাম পাঠাতে দ্বিধা করবে না বলে জানিয়েছেন তুর্কি ভাইস প্রেসিডেন্ট ফুয়াত ওকট্যা। বুধবার (২১ অক্টোবর) তিনি এ মন্তব্য করেন। বাকু এখনো পর্যন্ত এ ধরনের আহ্বান জানায়নি বলেও জানান তুর্কি ভাইস প্রেসিডেন্ট।

আগেরদিন আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশিনয়ান জানান, নার্গোনো-কারাবাখ নিয়ে আজারবাইজানের সঙ্গে চলমান সংঘাত নিরসনে কূটনৈতিক কোনো সম্ভাবনা তিনি দেখতে পাচ্ছেন না।

ধর্ষণের শিকার ১৭ বছরের কিশোরীর কোলে নবজাতক

আর্মেনিয়ার অবৈধ দখল থেকে আজারবাইজানের ভূখণ্ড উদ্ধারে বাকুকে পূর্ণ সমর্থন দেয়ার কথা আগেই ঘোষণা করেছে আঙ্কারা।

তুর্কি সিএনএনকে দেয়া সাক্ষাতকারে নার্গোনা-কারাবাখ সংকট সমাধানে ফ্রান্স, রাশিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রের সমন্বয়ে গঠিত মিনস্ক গ্রুপের তীব্র সমালোচনা করেন তুর্কি ভাইস প্রেসিডেন্ট। বলেন, দু’পক্ষের মধ্যে সংঘাত জিইয়ে রাখতে চেষ্টা করছে মিনস্ক গ্রুপ। আর্মেনিয়াকে তারা রাজনৈতিক এবং সামরিক উভয়ভাবেই সহায়তা করছে।

নার্গোনো কারাবাখ আন্তর্জাতিকভাবে আজারবাইজানের ভূখণ্ড হিসেবে স্বীকৃত।

নার্গোনা-কারাবাখ আজারবাইজানের ভূখণ্ড। আর্মেনিয়ার সহায়তায় তা দখল করে আছে আর্মেনিয়ার বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। ১৯৯৪ সালের যুদ্ধের পর থেকে ভূখণ্ডটি আর্মেনিয়ার বিচ্ছিন্নতাবাদীদের দখলে। সবশেষ ২৭ অক্টোবর নতুন করে সেখানে যুদ্ধ শুরু হয়। যাকে এ যাবতকালের সবচেয়ে বড় সংঘাত বলে আখ্যা দিয়েছে গণমাধ্যম।

রাশিয়ার মধ্যস্থতায় দুটি যুদ্ধবিরতি চুক্তি হলেও তা কার্যকরের কিছুক্ষণ পরেই ভেস্তে যায়। মানবিক এ চুক্তি লঙ্ঘন করে ভারী গোলাবারুদ, রকেট এবং ড্রোন ব্যবহার করে সংঘাতপূর্ণ এলাকায় বিবদমান পক্ষগুলো লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে।

আর্মেনিয়ার বিচ্ছিন্নতাবাদীরা জানিয়েছে, এ পর্যন্ত তাদের ৮৩৪ সেনা নিহত হয়েছে। আজারবাইজান জানিয়েছে তাদের ৬৩ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে ২৯২ জন।

নার্গোনো-কারাবাখ থেকে আর্মেনিয়ার দখলদারিত্ব অবসানের মাধ্যমে সংঘাত নিরসনের আহ্বান জানিয়েছেন আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
সেহরির শেষ সময় - ভোর ৩:৪১
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৪৯
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৬
  • ১২:০১
  • ৪:৩৭
  • ৬:৪৯
  • ৮:১৫
  • ৫:১০