আমদানী থাকলেও কাঁচা সব্জির মূল্য বাড়তির মুখে!

41

সাকিব হোসেন, পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি:

নওগাঁর সাপাহারে গত ১ সপ্তাহে বেড়েছে কাঁচা সব্জির দাম। প্রচুর পরিমানে আমদানী থাকলেও কিছু অসাধু ব্যবসায়ীদের জন্য কাঁচা সব্জির দাম বাড়ছে বলে অভিযোগ করছেন খুচরা ব্যাবসায়ীরা। আর এর প্রভাব পড়ছে মধ্য আয়ের ক্রেতাদের উপর।

সদরের কাঁচা বাজার ঘুরে জানা যায়, গত ১ সপ্তাহে বিভিন্ন সব্জির প্রতি কেজিতে দাম বেড়েছে ৫টাকা থেকে ২০ টচাকা পর্যন্ত। প্রচুর পরিমানে প্রতিটি কাঁচা পণ্যের আমদানী থাকা সত্বেও দাম বেড়েই চলেছে। গত সপ্তাহে প্রতি কেজি পেঁয়াজের মূল্য ছিলো ২৫ টাকা, চলতি সপ্তাহে তা প্রতিকেজি ৩০ টাকা, গত সপ্তাহে প্রতিকেজি বেগুনের মূল্য ছিলো ১৫ টাকা , চলতি সপ্তাহে ৩০ টাকা।

গত সপ্তাহে শশার মূল্য ছিলো ২২ টাকা , চলতি সপ্তাহে ৩০ টাকা, গত সপ্তাহে খিরার মূল্য ছিলো প্রতিকেজি ১০ টাকা চলতি সপ্তাহে ২০টাকা, গত সপ্তাহে আদার মূল্য ছিলো প্রতিকেজি ৫৫ টাকা, চলতি সপ্তাহে ৭০-৮০ টাকা, গত সপ্তাহে রসুনের মূল্য ছিলো প্রতিকেজি ৫০টাকা, চলতি সপ্তাহে ৬০ টাকা।

এভাবে প্রায় প্রতিটি কাঁচা পণ্যের দাম বাড়তির পথে । এই উপজেলার উৎপাদিত কাঁচাপণ্য অসাধু পাইকারদের কারনে বাইরে চলে যাবার ফলে অনেকটা ঘাটতি থেকে যাওয়ার কারনে বাজারমূল্য বাড়ছে বলে অভিযোগ খুচরা ব্যাবসায়ীদের। যাতে করে বিপাকে পড়ছেন মধ্যআয়ের ক্রেতারা।

খুচরা তরকারী বিক্রেতা আমিনুল ইসলাম জানান, কাঁচা পণ্যের দাম বাড়ার কারন হলো পাইকারী ব্যাবসায়ীরা। তারা সকাল হতে ওঁৎ পেতে থাকে পাইকারী বাজারে।

সেখান থেকে পণ্য ক্রয় করে অধিক মুনাফার আশায় রাজধানীতে পাঠিয়ে দিচ্ছেন। যার প্রভাব পড়ছে খুচরা বিক্রেতাদের উপর।

তরকারী বিক্রেতা আলমগীর হোসেন বলেন, বিভিন্ন পাইকাররা রাস্তার পাশে বসে থেকে কাঁচা পণ্য ক্রয় করে ঢাকাতে পাঠাচ্ছে যাতে করে পাইকারী বাজারে এর প্রভাব পড়ছে।

বিষয়টি নিয়ে কাঁচা বাজার সমিতির সভাপতি হাবিবুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি পাইকারদের সাথে বসে বিষয়টি নিরসনের চেষ্টা করবেন বলে এ প্রতিনিধিকে জানান।