কিশোরগঞ্জে মায়ের কাছে ঘরে বসে ১০ মাসে হাফেজ ৮বছরের মুয়াজ

রায়হান জামান, কিশোরগঞ্জ সংবাদদাতাঃ কিশোরগঞ্জে মায়ের কাছে ঘরে বসে মাত্র ১০ মাসে পবিত্র কুরআনে হাফেজ হয়েছে ৮বছর বয়সী ছোট্ট শিশু আবরারুল হক মুয়াজ। হাফেজ আবরারুল হক মুয়াজ কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার ছিলনী গ্রামের মাওলানা মাহবুবুর রহমানের ছেলে। মাত্র ৮ বছর বয়সে পুরো কুরআন মুখস্থ করে হলেন গর্বিত হাফেজ। সবাই বিস্ময় প্রকাশ করলেও তাঁর পরিবারে বইছে আনন্দের বন্যা। হাফেজ হওয়ার পেছনে পুরো কৃতিত্ব যে তাঁর মায়ের। রবিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) গ্রামবাসীর ফুলের শুভেচ্ছায় সিক্ত হয় ছোট্ট আবরার।

মহামারী করোনাভাইরাস শুরু আগে বাবার সঙ্গে কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শহীদী মসজিদে অনুষ্ঠিত হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতা দেখতে যায় মুয়াজ। সেই প্রতিযোগিতায় সম্মাননা বাচ্চাদের তেলাওয়াত শুনেই সে হাফেজ হওয়ার অনুপ্রেরণা পায়। বাসায় ফিরে এসে দ্রুত হিফজ সম্পন্ন করার বিষয় মা-বাবাকে জানায় ছোট্ট মুয়াজ। কুরআনুল কারিম হিফজ শুরুর কিছুদিনের মধ্যেই বাংলাদেশে মহামারী করোনা হানা দেয়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়।

কিন্তু এ সবের মাঝে থেমে থাকেনি ছোট্ট শিশু আবরারুল হক মুয়াজের পড়াশোনা। মাদরাসা বন্ধ হওয়ার পর বাসায় বসে মায়ের কাছেই কুরআনুল কারীমের পড়া অব্যাহত রাখেন। নিয়মিত সবক দিতে থাকে। মুয়াজের সম্মানিত মাতা হাফেজা ও আলেমা কামরুন্নাহার তাঁকে নিবিড় তত্ত্বাবধানে কুরআনুল কারীম পড়াতে থাকেন। এভাবেই সে মায়ের কাছে ঘরে বসেই পবিত্র কুরআনুল কারিম হিফজ সম্পন্ন করে। গত ২০ ফেব্রুয়ারি শেষ সবক দেন ছোট্ট মুয়াজ। এমনটিই জানিয়েছেন মুয়াজের পরিবার।