চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হলেন সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক :ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে আচরণবিধি ভাঙায় চার ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন মোহামেডান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

শুক্রবার (১২ জুন) আবাহনীর বিপক্ষে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করে লাথি দিয়ে স্টাম্প ভাঙায় সাকিবকে এই শাস্তি দেওয়া হলো।মোহামেডানের ক্রিকেট কমিটির চেয়ারম্যান মাসুদুজ্জামান গণমাধ্যমকে এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ঘটনাটা ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসের। লক্ষ্য তাড়ায় নেমে ২৫ রানের মধ্যেই ৩ উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে যায় আবাহনী। এরপর নিজের প্রথম ওভারের শেষ বলে আবাহনীর অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের বিপক্ষে লেগ বিফোরের আবেদন করেন সাকিব। কিন্তু আম্পায়ার সাকিবের আবেদনে সাড়া না দিলে লাথি মেরে স্ট্যাম্প মোহামেডানের অধিনায়ক। এরপর ওভার শেষে তিন স্ট্যাম্প উঠিয়ে আম্পায়ারের দিকে তেড়ে যান সাকিব। এর কিছুক্ষণ পর বৃষ্টি বাধায় খেলা স্থগিত হয়ে যায়।

আরো পড়ুন :  পানছড়িতে পাজেপ সদস্য পার্থ ত্রিপুরা জুয়েলের ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ

মাঠ ছাড়ার সময় ফের ঝামেলায় জড়ান সাকিব। এবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক, জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও আবাহনী লিমিটেডের প্রধান কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের সঙ্গেও বাকবিতণ্ডা হয় সাকিবের।

যদিও মাঠে অসদাচরণের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্ষমা চেয়েছেন সাকিব।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া এক পোস্টে তিনি বলেন, ‘প্রিয় ভক্ত ও অনুসারীরা, নিজের মেজাজ হারানোর জন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত। সেই সঙ্গে ম্যাচের আবহ নষ্ট করার জন্য ক্ষমা চাচ্ছি। বিশেষ করে যারা বাড়িতে বসে খেলা দেখছেন। আমার মতো একজন অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের কাছে এমন আচরণ কোনোভাবেই কাম্য নয়।

কিন্তু মাঝে মাঝে দুর্ভাগ্যবশত এ রকম হয়ে যায়। এই মানবিক ভুলের কারণে আমি দল, ম্যানেজমেন্ট ও টুর্নামেন্টের কমিটির কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। আশা করছি ভবিষ্যতে আর এমনটা হবে না। ধন্যবাদ, সবার জন্য ভালোবাসা।’

আরো পড়ুন :  পানছড়িতে পাজেপ সদস্য পার্থ ত্রিপুরা জুয়েলের ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ