DoinikAstha Epaper Version
ঢাকাসোমবার ৪ঠা মার্চ ২০২৪
ঢাকাসোমবার ৪ঠা মার্চ ২০২৪

আজকের সর্বশেষ সবখবর

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুরে নৌকার মনোনয়ন পেলেন যারা

মামুনুর রশীদ,ফরিদপুর
নভেম্বর ২৬, ২০২৩ ৯:০৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আগামী বছরের ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে মনোনীত প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করেছে আওয়ামী লীগ। রোববার বিকেলে এই তালিকা প্রকাশ করা হয়।

আসন্ন সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুর জেলায় নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন ফরিদপুর-১ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান, ফরিদপুর-২ আসনে সাবেক সংসদ উপনেতা ও প্রয়াত সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর কনিষ্ঠ পুত্র শাহদাব আকবর লাবু চৌধুরী, ফরিদপুর-৩ আসনে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শামীম হক, ফরিদপুর-৪ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ। এদিকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুর-৩ আসনে মনোনয়ন পাননি তিনবারের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। আসনটিতে মনোনিত প্রার্থী হিসেবে ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামিম হকের নাম প্রকাশ করা হয়েছে। এনিয়ে জেলা সদরে বিবিধ আলোচনায় মুখরিত ফরিদপুরবাসী। তবে নতুন মুখ আসায় অভিনন্দন জানিয়ে গোটা শহরে আনন্দ উৎসবে মেতে উঠেছে।

ফরিদপুর সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত ফরিদপুর-৩ আসনে ১১ জন আওয়ামী লীগের প্রার্থী নৌকার মনোনয়ন কিনেন। ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন নবম, দশম ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে ফরিদপুর-৩ আসনটিতে নির্বাচিত হন। তিনি নবম ও দশম সংসদে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী এবং পরে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। ২০২০ সালের জুন মাসে আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর এক বিশেষ অভিযানে তার আস্থাভাজন বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে আটক করা হয়। তার পর থেকে তিনি আসনটিতে আসেন না। এছাড়া তিনি অসুস্থতা জনিত কারণে বর্তমানে  তিনি সুইজারল্যান্ডে মেয়ের কাছে অবস্থান করছেন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৩০ নভেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর। মনোনয়ন আপিল ও নিষ্পত্তি ৬ থেকে ১৫ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর এবং প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে ১৮ ডিসেম্বর। নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা চলবে ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ৭ জানুয়ারি।

এদিকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুর-৩ আসনে মনোনয়ন পাননি তিনবারের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। আসনটিতে মনোনিত প্রার্থী হিসেবে ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামিম হক এবার দলের মনোনয়ন পেয়েছেন। সাবেক সংসদ ও মন্ত্রী মনোনয়ন না পাওয়ায় এনিয়ে জেলা সদরে বিবিধ আলোচনায় মুখরিত ফরিদপুরবাসী। তবে নতুন মুখ আসায় অভিনন্দন জানিয়ে গোটা শহরে আনন্দ উৎসবে মেতে উঠেছে।আসন্ন সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুর জেলায় নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন ফরিদপুর-১ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান, ফরিদপুর-২ আসনে সাবেক সংসদ উপনেতা ও প্রয়াত সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর কনিষ্ঠ পুত্র শাহদাব আকবর লাবু চৌধুরী, ফরিদপুর-৩ আসনে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শামীম হক, ফরিদপুর-৪ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ।
এদিকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুর-৩ আসনে মনোনয়ন পাননি তিনবারের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন। আসনটিতে মনোনিত প্রার্থী হিসেবে ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামিম হক এবার দলের মনোনয়ন পেয়েছেন।

সাবেক সংসদ ও মন্ত্রী মনোনয়ন না পাওয়ায় এনিয়ে জেলা সদরে বিবিধ আলোচনায় মুখরিত ফরিদপুরবাসী। তবে নতুন মুখ আসায় অভিনন্দন জানিয়ে গোটা শহরে আনন্দ উৎসবে মেতে উঠেছে।

ফরিদপুর সদর উপজেলা নিয়ে গঠিত ফরিদপুর-৩ আসনে ১১ জন আওয়ামী লীগের প্রার্থী নৌকার মনোনয়ন কিনেন। ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন নবম, দশম ও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে ফরিদপুর-৩ আসনটিতে নির্বাচিত হন। তিনি নবম ও দশম সংসদে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী এবং পরে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।

২০২০ সালের জুন মাসে আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর এক বিশেষ অভিযানে তার আস্থাভাজন বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে আটক করা হয়। তার পর থেকে তিনি আসনটিতে আসেন না। এছাড়া তিনি অসুস্থতা জনিত কারণে বর্তমানে  তিনি সুইজারল্যান্ডে মেয়ের কাছে অবস্থান করছেন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৩০ নভেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর।
মনোনয়ন আপিল ও নিষ্পত্তি ৬ থেকে ১৫ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর এবং প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে ১৮ ডিসেম্বর। নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা চলবে ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ৭ জানুয়ারি।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
সেহরির শেষ সময় - ভোর ৫:০৪
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:০৫
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:০৯
  • ১২:১৪
  • ৪:২২
  • ৬:০৫
  • ৭:১৮
  • ৬:২০