DoinikAstha Epaper Version
ঢাকামঙ্গলবার ২৭শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪
ঢাকামঙ্গলবার ২৭শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আজকের সর্বশেষ সবখবর

দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষার্থে নবীন সেনাদের সজাগ থাকতে হবে- দীঘিনালায় জিওসি

News Editor
অক্টোবর ২২, ২০২০ ১১:০৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মোফাজ্জল হোসেন ইলিয়াছ, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি : প্রাপ্ত প্রশিক্ষণ ও শপথের মধ্য দিয়ে অর্পিত দায়িত্ব নিয়ে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষার্থে নবীন সেনাদের সজাগ থেকে দেশ ও জাতির প্রয়োজনে কঠিন প্রশিক্ষণকে কাজে লাগানোর আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চট্রগ্রাম এরিয়ার ২৪ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল এস এম মতিউর রহমান।আজ বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) সকালে খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় সেনাবাহিনীর এ্যাডহক ফরমেশন রিক্রুট ট্রেনিং সেন্টার মাঠে ব্যাচ ২০-২ এর শপথ গ্রহণ ও কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান তিনি।
তিনি নবীন সৈনিকদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, ‘কঠিন প্রশিক্ষনকে কাজে লাগিয়ে সেনাবাহিনীতে নিজেদের আলোকিত হবার সুযোগ রয়েছে। আদর্শ ও নির্ভীক সৈনিক হিসেবে নিজেকে নিয়োজিত রাখতে হবে। আত্মবিশ্বাস নিষ্ঠা ও কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে দক্ষ সেনাসদস্য হিসেবে নিজেদের গড়ে তোলতে হবে।রিক্রুট ২০-২ ব্যাচে ইস্ট বেঙ্গল ও ইনফেন্টি রেজিমেন্টের ৯৫৯ জন নবীন সৈনিকরা স্ব-স্ব ধর্মগ্রন্থে হাত রেখে দেশ মাতৃকার জন্য জীবন উৎসর্গ, শৃঙ্খলা ও দায়িত্ব পালনের শপথ গ্রহণ করেন। নবীন সেনা সদস্য শপথ গ্রহণ শেষে প্রধান অতিথি, আমন্ত্রিত অতিথি ও নবীন সেনা সদস্যের আত্মীয়-স্বজনরা কুচকাওয়াজ উপভোগ করেন। এর আগে ট্রেনিং সেন্টারের প্যারেড ফিল্ডে নবীন সৈনিকদের শপথ বাক্য পাঠ করান ট্রেনিং সেন্টারের প্রধান তত্ত্বাবধায়ক লে: কর্ণেল মোঃ মেহেদী হাসান চৌধুরী।
প্রশিক্ষণে শ্রেষ্ঠতা অর্জনকারী কোম্পানী ও সৈনিকদের পুরস্কৃত করা হয়। পরে প্রধান অতিথি নবীন সৈনিকদের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও সালাম গ্রহণ করেন এবং ট্রেনিং চলাকালীন প্রশিক্ষণে শ্রেষ্ঠতা অর্জনকারী কোম্পানী ও সৈনিকদের পুরস্কৃত করেন।এসময়, খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ ফয়জুর রহমান, চট্রগ্রাম ডিভিশনের স্টাফ অফিসার কর্ণেল মোঃ মাহবুবুর রহমান, দীঘিনালা জোন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্নেল তৌহিদুর রহমান, প্যারেড কমান্ডার মেজর মাহমুদুল হাসান সহ অন্যান্য সেনা অফিসারগণ উপস্থিত ছিলেন।

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।
সেহরির শেষ সময় - ভোর ৫:০৭
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:০৩
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:১২
  • ১২:১৫
  • ৪:২১
  • ৬:০৩
  • ৭:১৭
  • ৬:২৪