ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানাই কথিত সাংবাদিক মানিক আটক

12

জেলা প্রতিনিধি:

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ায় কথিত সাংবাদিক  চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার  ৬২ আড়িয়া গ্রামের মানিক খানকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকাল ৩টার দিকে এ স্ট্যাটাস দেয়ার পর সন্ধ্যার দিকে স্থানীয় তিতুদহ ক্যাম্প পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নেয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের ৬২ আড়িয়া গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে মানিক খান।মঙ্গলবার বিকেলে ৩ টার দিকে ফেসবুকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনে একটি পোস্ট করেন।

পোস্টে লেখা ছিলো, যেখানে সেখানে মসজিদ না তৈরি করে কিছু খেলাধুলা করার মাঠ বানালে শিশু কিশোরদের সুস্থ মানসিক বিকাশ ঘটত। এত মসজিদ দিয়েও সমাজের মানবিক বিপর্যয় রোধ করা যাচ্ছে না। কারণ, মসজিদসহ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সমূহ,খেলার মাঠ এবং সাংস্কৃতিক ক্লাব-এই সবকিছুর প্রয়োজন আছে এই সমাজে। কিন্তু শুধু মসজিদ বানানোর কারণে সমাজ টা এত বিষাক্ত।

 উপরোক্ত পোস্টটি করার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তা স্ক্রিনশট দিয়ে কয়েকজন বিভিন্ন গ্রুপ ও নিজস্ব ওয়ালে শেয়ার করেন। এতে এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের  মাঝে চরম ক্ষোভ প্রকাশ পাই। অনেকেই তার বিরুদ্ধে মারমুখী একত্রিত হয়ে তাকে প্রতিরোধ করার জন্য একত্রিত হতে শুরু করে।

বিষয়টি নিয়ে প্রশাসন তড়িৎ পদক্ষেপ নেয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে স্থানীয় তিতুদহ ক্যাম্প পুলিশ তাকে আটক করে থানা হেফাজতে নেয়।